advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

ময়নাতদন্তের সময় জেগে উঠলেন তিনি

অনলাইন ডেস্ক
৩০ নভেম্বর ২০২০ ১৬:৪৫ | আপডেট: ৩০ নভেম্বর ২০২০ ১৭:১৩
হাসপাতালে চিকিৎসাধীন পিটার কিগেন। ছবি : সংগৃহীত
advertisement

কেনিয়ার একটি হাসপাতালে মৃত ঘোষণা করা এক ব্যক্তি ময়নাতদন্ত করার সময় হঠাৎ করে জেগে উঠেছেন। মর্গের স্টাফরা যখন তার পা থেকে কাটা শুরু করেন, তখন তিনি চিৎকার করে ওঠেন। 

কেনিয়ার সংবাদপত্র দ্য স্ট্যান্ডার্ড- এর তথ্য মতে, মৃত ঘোষণা করার ৪ ঘণ্টা পরে জীবন ফিরে পান পিটার কিগেন (৩২)। পরিবারের সদস্যরা তাকে ‘পেটের অসুস্থতা’র কারণে হাসপাতালে ভর্তি করানোর আগে বাড়িতেই মারা যান কিগেন।

কিগেনের ভাই কিপকুরুই দাবি করেছেন, একজন নার্স তাকে জানান, কেপেন কেপকেট হাসপাতালে আসার অনেক আগে মারা যান কিগেন। নার্স তার ভাইয়ের মরদেহ মর্গে স্থানান্তরিত করার আগে মৃত্যুর সনদ তাকে হস্তান্তর করেছিলেন। কিন্তু চার ঘণ্টা পরে, যখন স্টাফরা কিগেনের ময়নাতদন্তের জন্য প্রস্তুতি নিতে শুরু করে সে সময় তারা বুঝতে পারেন তিনি বেঁচে আছেন।

কিগেনের ভাই কিপকুরুই আরও বলেন, ‘মর্গের স্টাফরা যখন আমাকে মর্গে ডেকে বলল যে কিগেন নাড়াচড়া করছে তখন আমরা হতবাক হয়ে গিয়েছিলাম।’

কিগেনের স্বজনদের অভিযোগ, ডাক্তাররা চিকিৎসায় বেশি সময় নিয়েছে এবং দ্রুত মর্গে পাঠানোর সিদ্ধান্ত নেওয়ার কারণে এ ধরনের ঘটনা ঘটেছে।

বেঁচে ফেরা কিগেন বলেন, ‘আমি জানতাম না আমি যখন ফিরে এসেছি তখন আমি কোথায় ছিলাম, আমি বিশ্বাস করতে পারছি না ডাক্তাররা কীভাবে প্রমাণ করলেন যে আমি মারা গিয়েছি?। তবে আমি আমার জীবন ফিরে পাওয়ায় ঈশ্বরকে ধন্যবাদ জানাই। আমি সারা জীবন তার সেবা করব।’

তবে হাসপাতালের মেডিকেল সুপার গিলবার্ট চেরুইয়োট দাবি করেন, কিগেনের স্বজনরা ‘মৃত্যুর সনদের জন্য অপেক্ষাও করেননি এবং ধরে নিয়েছিলেন যে তিনি মারা গেছেন।’

চিকিৎসক জানান, জীবন ফিরে পাওয়ায় রোগীকে পরে ওয়ার্ডে নিয়ে যাওয়া হয় এবং চিকিৎসা করায় সুস্থতা অনুভব করছেন তিনি। কয়েক দিনের মধ্যেই তাকে ছাড়পত্র দেওয়া হবে বলে তারা আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

advertisement
Evaly
advertisement