advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য স্থাপনের বিরোধিতাকারীদের মুক্তিযুদ্ধমন্ত্রীর হুঁশিয়ারি

অনলাইন ডেস্ত
১ ডিসেম্বর ২০২০ ২২:০২ | আপডেট: ২ ডিসেম্বর ২০২০ ০০:৪০
সোহরাওয়ার্দী উদ্যান ঘিরে বঙ্গবন্ধু ভাস্কর্য স্থাপনের বিরোধিতাকারীদের গ্রেপ্তারের দাবিতে মানববন্ধন। ছবি: আমাদের সময়
advertisement

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্য স্থাপনের বিরোধিতাকারী হেফাজতে ইসলামের নেতাদের হুঁশিয়ারি দিয়েছেন মুক্তিযুদ্ধবিষয়কমন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক। তিনি বলেছেন, ‘এই সমস্ত অর্বাচীন কথা, এই সমস্ত আস্ফালন বন্ধ করে দিন। না হয় বাংলার স্বাধীনতাকামী মানুষ রাজপথেই এর জবাব দেবে। তার পরিণাম ভালো হবে না।’

 

আজ মঙ্গলবার বঙ্গবন্ধু ও সংবিধান অবমাননার অভিযোগে হেফাজতের আমির জুনাইদ বাবুনগরী এবং যুগ্ম মহাসচিব মামুনুল হকের গ্রেপ্তার দাবিতে ঢাকার ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যান ঘিরে মানববন্ধনে তিনি এসব কথা বলেন। একাত্তরের ঘাতক-দালাল নির্মূল কমিটির উদ্যোগে এই কর্মসূচিতে সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও পেশাজীবীদের ৬০টি সংগঠন অংশ নেয়। এর বাইরেও বিভিন্ন সংগঠনের নেতারা সংহতি জানান।

 

মুজিববর্ষে ঢাকার ধোলাইড়পাড়ে বঙ্গবন্ধুর যে ভাস্কর্য সরকার স্থাপন করছে, তার বিরোধিতায় নেমেছে হেফাজতসহ ইসলামী কয়েকটি দল। এদের মধ্যে হেফাজতের আমির জুনায়েদ বাবুনগরী, খেলাফত মজলিসের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মামুনুল হক ও ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের নায়েবে আমির সৈয়দ ফয়জুল করিম বেশ সরব। গত ২৭ নভেম্বর চট্টগ্রামের এক অনুষ্ঠানে হেফাজতে ইসলামের আমীর জুনাইদ বাবুনগরী যে কোনো দল ভাস্কর্য বসালে তা ‘টেনে হিঁচড়ে’ ফেলে দেওয়া হবে।

 

তাদের গ্রেপ্তারের দাবিতে আয়োজিত মানববন্ধনে মোজাম্মেল হক বলেন, ‘মুক্তিযুদ্ধের সময় যারা আমাদের স্বাধীনতার বিরোধিতা করেছিল, ইসলামকে প্রতিপক্ষ হিসেবে দাঁড় করিয়েছিল, আমি জানি না, তাদের প্রেতাত্মারাই আবার এই ধরনের আস্ফালন করছে কি না? সরকারের উচিৎ অবিলম্বে তাদের কার্যক্রম এবং এই যে সংবিধানবিরোধী বক্তব্য সেগুলো খতিয়ে দেখে আইনের শাসন কায়েমের জন্য আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা। এটা কি ব্যক্তিগত খামখেয়ালিপূর্ণ উক্তি, নাকি সুপরিকল্পিত উক্তি, ভালোভাবে খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা নিতে হবে।’

advertisement
Evaly
advertisement

এ বিভাগের আরও খবর