advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

ত্রিশালে বসতঘর পেয়ে খুশি ভিক্ষুক ফজিলা খাতুন

ত্রিশাল (ময়মনসিংহ)
৫ ডিসেম্বর ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ৫ ডিসেম্বর ২০২০ ০০:১৬
advertisement

প্রায় ১৫ বছর আগে তিন মেয়ে ও এক প্রতিবন্ধী ছেলে রেখে মারা যান স্বামী উমর আলী। স্বামীর মৃত্যুর পর থেকে ভিটেমাটি ও সম্বলহীন পরিবারটি গ্রামে গ্রামে ভিক্ষাবৃত্তি করে কোনোরকমে চলছিল। একটি ছোট টিনশেড ঘরে পরিবারের ৫ সদস্য নিয়ে মানবেতর জীবনযাপন করছিলেন মোছা. ফজিলা খাতুন। সামাজিক ও জনপ্রতিনিধিদের দ্বারে দ্বারে ঘুরেও একটি থাকার ঘর পাননি তিনি। পরে শরণাপন্ন হন ত্রিশালের স্বেচ্ছাসেবী সামাজিক সংগঠন রকিব ওয়েলফেয়ারের। ফজিলা ময়মনসিংহের ত্রিশাল উপজেলার বইলর ইউনিয়নের চরপাড়া গ্রামের বাসিন্দা।

রকিব ওয়েলফেয়ারের সমন্বয়ক মিনহাজ ফাউন্ডেশনের সদস্য বিরাজকে দায়িত্ব দেন ফজিলা খাতুনের খবরাখবর নিতে। যাচাই-বাছাই করে দ্রুত একটি বসতঘর ফজিলা খাতুনকে করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় রকিব ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশন। এ ঘর নির্মাণের কাজ শেষ হয় গত বৃহস্পতিবার।

গত শনিবার নবনির্মিত ঘরের চাবি ফজিলা খাতুন ও তার প্রতিবন্ধী ছেলের হাতে তুলে দেন ত্রিশাল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোস্তাফিজুর রহমান। ঘর পেয়ে ভীষণ খুশি ফজিলা খাতুন ও তার ছেলে। ফজিলা খাতুন বলেন, একটি থাকার ঘর করা ছিল স্বপ্নের মতো। তিনি রকিব ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশনের সবার জন্য দোয়া করেন।

রকিব ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশনের পরিচালক মিনহাজ বলেন, আমাদের ফাউন্ডেশনের অসহায়-দরিদ্রদের জন্য গৃহনির্মাণ প্রকল্পের এটি ৪ নম্বর প্রকল্প। প্রকল্পটি বাস্তবায়নে প্রত্যেক সদস্যই অনেক অবদান রেখেছেন।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোস্তাফিজুর রহমান জানান, নিঃসন্দেহে এটি একটি ভালো কাজ। এসব কাজে সবার এগিয়ে আসা উচিত। সরকারের পাশিাপাশি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনগুলো এগিয়ে এলে সমাজের অনেক উপকার হবে।

advertisement
Evaly
advertisement