advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

খুলনায় মাদক বিক্রেতাদের হাতে ডিবির সোর্স খুন

আমাদের সময় ডেস্ক
১৪ জানুয়ারি ২০২১ ০০:০০ | আপডেট: ১৩ জানুয়ারি ২০২১ ২২:৪৯
advertisement

খুলনায় মাদক বিক্রেতাদের ছুরিকাঘাতে ডিবি পুলিশের এক সোর্স খুন হয়েছেন। হবিগঞ্জের বাহুবলে পূর্ববিরোধের জেরে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে এক কিশোরকে। নওগাঁর মান্দায় উদ্ধার করা হয়েছে খেয়াঘাট শ্রমিকের গলা কাটা লাশ উদ্ধার। এ ছাড়া নাটোরের লালপুরে উদ্ধার করা হয়েছে দুই যুবক-যুবতীর লাশ। প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর-

খুলনা : নগরীর বান্দাবাজার এলাকায় গত মঙ্গলবার রাত ১১টার দিকে মাদক বিক্রেতাদের ছুরিকাঘাতে গোয়েন্দা পুলিশের এক সোর্স খুন হন। একই ঘটনায় আহত আরও দুজন খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। নগরীর লবণচরা থানার ওসি সমীর কুমার সরদার এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। নিহতের নাম শফিকুল ইসলাম। তার বিস্তারিত পরিচয় পাওয়া যায়নি।

ওসি সমীর জানান, রাতে তিন সোর্স মহানগর ডিবি পুলিশের একটি দল নিয়ে ইয়াবা ক্রেতার ছদ্মবেশে লবণচরার বান্দাবাজার এলাকার বাহাদুর লেনে যান। টের পেয়ে ইয়াবা বিক্রেতা চক্রের সদস্যরা অতর্কিতে তাদের ওপর হামলা চালায়। এ সময় ডিবি পুলিশের এক এএসআই এবং দুই সোর্স গুরুতর জখম হন। তাৎক্ষণিকভাবে ডিবি পুলিশের সদস্যরা ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে আহতদের উদ্ধার করে খুলনা মেডিক্যালে নিয়ে যান। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক শফিকুল ইসলামকে মৃত ঘোষণা করেন।

নওগাঁ : মান্দায় আবদুস সাত্তার মোল্লা নামে এক খেয়াঘাট শ্রমিকের গলা কাটা লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। গতকাল বেলা ১১টার দিকে নিহতের বাড়ি থেকে অন্তত ১০ কিলোমিটার দূরে উপজেলার বিষ্ণুপুর ইউনিয়নের শহরবাড়ি পূর্বপাড়া এলাকায় আত্রাই নদীর তীরসংলগ্ন একটি ভুট্টাক্ষেত থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়। আব্দুস সাত্তার উপজেলার নুরুল্লাবাদ ইউনিয়নের নুরুল্লাবাদ উত্তরপাড়া গ্রামের মৃত ফজের আলী মোল্লার ছেলে। তিনি ত্রিমোহনী খেয়াঘাটের শ্রমিক ছিলেন। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য নওগাঁ হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ।

নিহতের মেয়ে রিপা আক্তার জানান, মঙ্গলবার সন্ধ্যায় নিকটস্থ বাজারে চা খাওয়ার উদ্দেশ্যে তার বাবা বাড়ি থেকে বেরিয়ে

যান। রাত ১০টা পর্যন্ত বাড়ি না ফেরায় তারা উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েন। এর পর তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোনে একাধিকবার কল দেওয়া হলেও সেটি রিসিভ হয়নি। গতকাল বেলা ১১টার দিকে বাবার মৃত্যুর বিষয়টি জানতে পারেন তারা।

মান্দা থানার ওসি শাহিনুর রহমান জানান, এ ঘটনায় মান্দা থানায় হত্যা মামলা করা হয়েছে।

বাহুবল : হবিগঞ্জের বাহুবলে আলমগীর মিয়া নামে এক কিশোরকে কুপিয়ে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। ঘটনাটি ঘটে গত মঙ্গলবার রাত ১০টার দিকে উপজেলার পুটিজুরী ইউনিয়নের বাংলাবাজার নামক স্থানে। আলমগীর মিয়া ওই ইউনিয়নের আহমদপুর গ্রামের আফতাই মিয়ার পুত্র। সে পেশায় রাজমিস্ত্রি। গতকাল সকালে পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করে মর্গে প্রেরণ করে।

পরিবার সূত্রে জানা যায়, আলমগীর মিয়া পুটিজুরী ইউনিয়নের ঢাকা-সিলেট মহাসড়কসংলগ্ন ডাকবাংলো নামক স্থানে ব্যাডমিন্টন প্রতিযোগিতা উপভোগ করতে যায়। এ সময় মোটরসাইকেল ও সিএনজিচালিত অটোরিকশা নিয়ে এসে একদল দুর্বৃত্ত তার ওপর হামলা চালায়। বাহুবল স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

নিহতের বন্ধু যাদবপুর গ্রামের মুন্না জানায়, গত ৬ জানুয়ারি উপজেলার মুগকান্দি গ্রামের মজনু শাহের উরসে শম্ভপুর গ্রামের সোহেল মিয়ার কিশোর পুত্র আকাশ মিয়ার সঙ্গে কথা কাটাকাটি হয় আলমগীরের। মঙ্গলবারও তাদের মধ্যে ঝগড়া হয় পার্শ্ববর্তী নবীগঞ্জ উপজেলার বড়চর গ্রামের ওয়াজ মাহফিলে। এর জের ধরে আকাশ মিয়া ও তার লোকজন এই হত্যাকা- ঘটাতে পারে। বাহুবল থানার ইনচার্জ মো. কামরুজ্জামান বলেন, পূর্ব বিরোধের জের ধরেই আলমগীরকে খুন করা হয়েছে। এখনো মামলা দায়ের করা হয়নি।

লালপুর : নাটোরের লালপুরে পৃথক স্থান থেকে ইমন নামে এক যুবক ও অজ্ঞাতপরিচয় এক নারীর লাশ উদ্ধার করে লালপুর থানাপুলিশ। মঙ্গলবার রাতে লালপুর উপজেলার কদিমচিলান ইউনিয়নে চষুডাঙ্গা বেলগাছি গ্রামের আলি মুন্সির গমক্ষেতে স্থানীয়রা ইমনের লাশ দেখে পুলিশকে খবর দেন। ইমন বাগাতিপাড়া উপজেলার লোকমানপুর মাড়িয়া গ্রামের আলাউদ্দিন আলীর ছেলে। অন্যদিকে লালপুরের আব্দুলপুর পাটিকাবাড়ী রেললাইনের পাশ থেকে ওই নারীর লাশ উদ্ধার করা হয়। লালপুর থানার ওসি সেলিম রেজা জানান, লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হয়েছে। তদন্ত করে পরবর্তী প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

advertisement
Evaly
advertisement