advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

ভোট চেয়ে ফেরার পথে ধর্ষণের শিকার সম্ভাব্য মেম্বার প্রার্থী

মির্জাগঞ্জ (পটুয়াখালী) ও বদরগঞ্জ (রংপুর) প্রতিনিধি
১৮ জানুয়ারি ২০২১ ০০:০০ | আপডেট: ১৭ জানুয়ারি ২০২১ ২৩:৩৫
advertisement

পটুয়াখালীর মির্জাগঞ্জে আসন্ন ইউপি নির্বাচনে সংরক্ষিত মহিলা সদস্য (মেম্বার) পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতার লক্ষ্যে আগাম প্রচার চালাচ্ছিলেন এক নারী। শনিবার রাত ৯টার দিকে শ্রীনগর গ্রামের চুন্নু ফকিরের ঘরে নারীদের কাছে দোয়া চেয়ে বাড়ি ফিরছিলেন তিনি। এ সময় ওঁৎ পেতে থাকা কয়েকজন তাকে ধরে মুখ চেপে রাস্তার পাশে ধানক্ষেতে নিয়ে যায়। সেখানে গণধর্ষণের শিকার হন তিনি।

তিন সন্তানের জননী ওই নারীকে অজ্ঞান অবস্থায় ফেলে রেখে চলে যায় লম্পটরা। রাত ১১টার দিকে ভিকটিমের জ্ঞান ফিরলে তার ডাকচিৎকারে আশপাশের লোকজন ছুটে আসেন। পরে তাকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যান। এ ঘটনায় তিনজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গ্রেপ্তারকৃতরা হলোÑ শ্রীনগর গ্রামের মো. জলিল, রাজা ও সজিব শিকদার।

এদিকে রংপুরের বদরগঞ্জে মধুপুর ইউনিয়নে উত্তর বাওচ-ি ডাঙ্গাপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের চতুর্থ শ্রেণির এক ছাত্রীকে কৌশলে বাড়িতে ডেকে নিয়ে ধর্ষণ করেছে প্রতিবেশী এক ব্যক্তি।

মির্জাগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এমআর শওকত আনোয়ার ইসলাম বলেন, মামলা রুজু করে আসামিদের আদালতে পাঠানো হয়েছে। আর ভিকটিমকে ডাক্তারি পরীক্ষা করানোর জন্য পটুয়াখালীর হাসপাতালে পাঠানোর ব্যবস্থা করা হচ্ছে। পরীক্ষার রিপোর্ট এলে পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এর আগে থানায় লিখিত অভিযোগ দিলে রাত ৩টার দিকে আসামিদের বাড়ি থেকে ওই তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। ঘটনা শুনে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাহফুজ রহমান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

অন্যদিকে রংপুরের বদরগঞ্জের উত্তর বাওচ-ি কচুয়াপাড়া গ্রামের আজিজার রহমানের ছেলে পারভেজ (৪৫) প্রতিবেশী ওই শিশুকে (১০) কৌশলে বাড়িতে ডেকে নিয়ে যায়। বাড়িতে লোকজন না থাকার সুযোগে জোরপূর্বক মুখ বেঁধে ধর্ষণ করে। এক পর্যায়ে স্কুলছাত্রীর চিৎকারে প্রতিবেশীরা টের পেলে ধর্ষক পারভেজ বাড়ি থেকে পালিয়ে যায়। পরে এলাকাবাসী গুরুতর আহত ও অচেতন অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করেন। হাসপাতালের চিকিৎসক প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়ার পর স্কুলছাত্রীকে উন্নত চিকিৎসার জন্য গতকাল বিকাল ৪টায় রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠান। স্কুলছাত্রীর বাবা ধর্ষণের বিচার চেয়ে বদরগঞ্জ থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।

advertisement