advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

উত্তরের খাল উদ্ধার করা হবে : আতিক

২১ জানুয়ারি ২০২১ ০১:১২
আপডেট: ২১ জানুয়ারি ২০২১ ০১:১২
advertisement


ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম বলেছেন, ডিএনসিসির সম্প্রসারিত ওয়ার্ডগুলোতে ১৩টি খাল রয়েছে। ২৯ কিমি দীর্ঘ এসব খালের যে অংশ অবৈধভাবে দখল করা হয়েছে তা পুনরুদ্ধার করা হবে। তিনি গতকাল ভাটারা, সাঁতারকুল, বাড্ডা এলাকায় (৩৭, ৩৮, ৪০ ও ৪১ নম্বর ওয়ার্ড) সুতিভোলা খাল ও কড্ডা খাল পরিদর্শন শেষে নামাপাড়ায় সাংবাদিকদের এ কথা বলেন।
মেয়র বলেন, এ এলাকার অবকাঠামো উন্নয়নে ইতোমধ্যে চার হাজার ২৫ কোটি টাকার একটি প্রকল্প একনেকে পাস হয়েছে। আমার প্রথম কাজ হচ্ছেÑ এসব এলাকায় রাস্তার পাশে ড্রেন নির্মাণ করা। দ্বিতীয় কাজÑ রাস্তা চওড়া করা। সরু রাস্তাগুলো অবশ্যই প্রশস্ত করতে হবে। এ কাজে আমাদেরকে জনগণ এবং রাজনৈতিক নেতাকর্মীগণ সাহায্য করছে। আমরা রাজউককে পত্র দিয়েছি, এ এলাকায় যেন কোনো ধরনের ভবন নির্মাণের প্ল্যান দেওয়া না হয়। আমি কাউন্সিলরদের বলেছি, এ এলাকায় আর যাতে কোনো বাড়ি না হয়।
খাল থেকে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ প্রসঙ্গে মেয়র বলেন, সিএস, আরএস, সিটি জরিপের যে দাগে খালের জায়গা বেশি পাওয়া যাবে, সে দাগ অনুসারে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হবে। কারণ খাল যত বড় হবে এলাকার পানি তত সহজে নির্গমণ হবে। এ এলাকার রাস্তায় একটু
বৃষ্টি হলে কোমরপানি হয়ে যায়। আমি ইতোমধ্যে এখানে যেসব ড্রেন আছে তা পরিষ্কারের নির্দেশ দিয়েছি। প্রকল্পে ড্রেনগুলো বড় করার নির্দেশ দিয়েছি। এ ছাড়া এ এলাকায় আর কোনো বাড়ি উঠবে না। আতিকুল ইসলাম আরও বলেন, চার হাজার ২৫ কোটি টাকার প্রকল্পের অধীনে ২৯ কিমি খাল পুনরুদ্ধার, পুনর্খনন, পাড় বাঁধাই, সাইকেল লেন, ওয়াকওয়ে ও সবুজায়ন করা হবে।
পরিদর্শনকালে তাদের মধ্যে ডিএনসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সেলিম রেজা, প্রধান বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কর্মকর্তা কমোডর এম সাইদুর রহমান, প্রধান প্রকৌশলী ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আমিরুল ইসলাম, প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ব্রিগেডিয়ার জেনারেল জোবায়েদুর রহমান, ৩৭ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর জাহাঙ্গীর আলম, ৩৮ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর শেখ সেলিম, ৪০ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো. নজরুল ইসলাম ঢালী ও ৪১ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর আকুল মতিন উপস্থিত ছিলেন।

advertisement
Evaly
advertisement