advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

গণস্বাস্থ্যের অ্যান্টিবডি কিটের ট্রায়ালে বিএমআরসির অনুমোদন

নিজস্ব প্রতিবেদক
২১ জানুয়ারি ২০২১ ২২:০৯ | আপডেট: ২২ জানুয়ারি ২০২১ ০১:০৪
গণস্বাস্থ্যের অ্যান্টিবডি কিট। পুরোনো ছবি
advertisement

বাংলাদেশ মেডিকেল রিসার্চ কাউন্সিল (বিএমআরসি) গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র উদ্ভাবিত আন্টিবডি কিটের ট্রায়াল আইসিডিডিআর,বিতে করার অনুমোদন দিয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার সকালে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বিএমআরসির অনুমোদনের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, ‘আমাদের অনেক দেরি হয়ে গেল। এতে একদিকে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হলো, অপরদিকে আমরা মানসিকভাবেও ক্ষতিগ্রস্ত হলাম। এরপরও বিএমআরসি অনুমোদন দেওয়ায় তাদের ধন্যবাদ ও অভিনন্দন জানাই। মনে হচ্ছে, গণস্বাস্থ্যের অ্যান্টিবডি কিটের অনুমোদন প্রক্রিয়ায় গতিশীলতা ফিরে এসেছে। বিএমআরসি আমাদের কিটের ট্রায়ালের অনুমোদন দিয়েছে। বর্তমানে ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তরের অনুমোদন প্রয়োজন। আমরা প্রত্যাশা করছি, ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তরও অতি দ্রুততার সঙ্গে আইসিডিডিআর,বিকে ট্রায়ালের অনুমোদন দেবে এবং আইসিডিডিআর, বিও অত্যন্ত দ্রুত গতিতে ট্রায়াল সম্পন্ন করে আমাদের কিটের অনুমোদন দেবে। যা দিয়ে আমরা দেশ ও দেশের মানুষের সেবা করতে পারব।’

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা আরও বলেন, ‘ভ্যাকসিন দেওয়ার এই সময়ে অ্যান্টিবডি পরীক্ষা অত্যন্ত জরুরি। এই কাজটি আমরা করতে চাই। দেশের মানুষের পাশে থাকতে চাই। সুতরাং আমরা প্রত্যাশা করছি, দেরিতে হলেও যেহেতু ট্রায়ালের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে, সেই গতিটা অব্যাহত থাকবে। একদিনের মধ্যে যেরকম ভ্যাকসিনের অনুমোদন দেওয়া হলো, সেই একই রকমের গতিতে আমরা আমাদের অ্যান্টিবডি কিটের অনুমোদন পাব বলে আশা করছি।’

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের তথ্য অনুযায়ী, তাদের অ্যান্টিবডি কিটের পরীক্ষা শেষে এটির কার্যকারিতা ৭০ শতাংশ উল্লেখ করে তা অনুমোদন দেওয়ার সুপারিশ করেছিল বিএসএমএমইউ। কিন্তু, ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তর অনুমোদন না দিয়ে কার্যকারিতা বাড়ানোর পরামর্শ দেয়। সেই অনুযায়ী গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র কাজ করে। নিজেরা পরীক্ষা করে কিটের কার্যকারিতা ৯৭ শতাংশে উন্নীত করে গত বছরের ২৪ জুলাই পুনরায় অনুমোদনের আবেদন করে।

এই চিঠির পরিপ্রেক্ষিতে এফডিএ’র ক্রাইটেরিয়া অনুসরণ করতে বলে ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তর। কিন্তু, এই ক্রাইটেরিয়া অনুযায়ী পরীক্ষার কোনো ল্যাব বাংলাদেশে ছিল না। মাস দুয়েক আগে আইসিডিডিআর,বি তাদের ল্যাবকে সেই মানে উন্নীত করেছে। বর্তমানে সেখানেই গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের অ্যান্টিবডি কিটের কার্যকারিতা পরীক্ষা করা হবে।

advertisement
Evaly
advertisement