advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

শাহজাদপুর ও কলাপাড়ায় দুই ইউপি চেয়ারম্যান সাসপেন্ড

সিরাজগঞ্জ ও কলাপাড়া প্রতিনিধি
২২ জানুয়ারি ২০২১ ০০:০০ | আপডেট: ২১ জানুয়ারি ২০২১ ২৩:১৬
advertisement

সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলার জালালপুর ইউনিয়ন পরিষদের অনুকূলে স্থানীয় সরকার বিভাগের লোকাল গভর্ন্যান্স প্রজেক্টের (এলজিএসপি-৩) ২ অর্থবছরে ৩০ লাখ ১৫ হাজার টাকা তছরুপের ঘটনায় ওই ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সুলতান মাহমুদ ও ইউপি সদস্য মোছা. সালেহা বেগমকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। গত ১৭ জানুয়ারি স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের স্থানীয় সরকার বিভাগের সিনিয়র সহকারী সচিব মো. আবু জাফর রিপন স্বাক্ষরিত এক আদেশে তাদের বরখাস্ত করা হয়।

অন্যদিকে ভিজিএফের চাল আত্মসাতের অভিযোগে পটুয়াখালীর কলাপাড়া উপজেলার চাকামইয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. হুমায়ুন কবির কেরামত হাওলাদারকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। তিনি ওই ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি। স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের স্থানীয় সরকার বিভাগ গত ২০ জানুয়ারি এক প্রজ্ঞাপনে চেয়ারম্যান হুমায়ুন কবির কেরামতকে সাময়িক বরখাস্ত করে। জানা যায়, ২০১৯ সালের ৭ আগস্ট কলাপাড়ার চাকামইয়া ইউনিয়নের পূর্ব-চাকামইয়া গ্রামের জালাল চাকরের বাড়ির পুকুর এবং অপর একটি বাড়ি থেকে উপজেলা প্রশাসন ১৫ বস্তা ভিজিএফের চাল এবং পুকুর থেকে ১০টি খালি বস্তা উদ্ধার করে। গ্রেপ্তার করা হয় ইউপি চেয়ারম্যান হুমায়ুন কবির কেরামত ও তার এক সহযোগী জামালকে। তখন ওই ঘটনায় পাঁচজনকে আসামি করে মামলা করা হয়।

কলাপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবু হাসনাত মোহাম্মদ শহিদুল হক জানান, মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনার চিঠি পেলে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এদিকে শাহজাদপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহ মো. শামসুজ্জোহা জানান, জালালপুর ইউপি চেয়ারম্যান সুলতান মাহমুদ এবং ইউপি সদস্য সালেহা বেগমকে দুই অর্থবছরে স্থানীয় সরকার বিভাগের এলজিএসপি-৩ প্রকল্পের আওতায় ইউনিয়ন পরিষদের অনুকূলে দুই কিস্তিতে মৌলিক থোক বরাদ্দের ১৫ লাখ ৫১ হাজার ৮৮২ টাকা ও ১৪ লাখ ৬৩ হাজার ৯৬২ টাকাসহ সর্বমোট ৩০ লাখ ১৫ হাজার ৮৪৪ টাকা তছরুপ করেন। ওই চেয়ারম্যান, সাবেক ইউপি সচিব এসএম জিয়াউল করিম ও ইউপি সদস্য সালেহা বেগমের যৌথ স্বাক্ষরে গত ২০১৯ সালের ৭ মার্চ থেকে ২০২০ সালের ৪ আগস্ট পর্যন্ত বিভিন্ন সময়ে জালালপুর ইউপির ব্যাংক অ্যাকাউন্টের ১২৯টি চেকের মাধ্যমে উত্তোলন করে সোনালী ব্যাংক শাহজাদপুর শাখায় সাবেক সচিবের নিজ নামীয় সঞ্চয়ী হিসাবে স্থানান্তর করেন। বিষয়টি এলজিএসপি-৩ এর ডিস্ট্রিক্ট ফ্যাসিলিটেটর (ডিএফ) মোহাম্মদ আখতারুজ্জামান ঘটনার তদন্ত করে সত্যতা পাওয়ায় তিনি বাদী হয়ে জালালপুর ইউপির সাবেক সচিব এসএম জিয়াউল করিম ও অজ্ঞাতনামাদের বিরুদ্ধে এনায়েতপুর থানায় একটি এজাহার দায়ের করেন।

advertisement