advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

সৌদি আরবে নতুন নিষেধাজ্ঞা

কামাল পারভেজ অভি,সৌদি আরব
৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ১৬:২৯ | আপডেট: ৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ১৯:০৯
সৌদি আরব
advertisement

বিশ্বজুড়ে চলমান করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউয়ের বিস্তার রোধে আগামী ১০ দিনের জন্য সৌদি আরবে সব ধরনের জনসমাগম নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছে দেশটির সরকার। আজ বৃহস্পতিবার সৌদি প্রেস এজেন্সি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে এ তথ্য জানায়।

এতে বলা হয়েছে, সৌদি আরবে সমস্ত বিনোদনমূলক অনুষ্ঠান তথা জনসমাগম আগামী ১০ দিনের জন্য বন্ধ করা হলো। তবে এই সিদ্ধান্ত সাময়িক, যা করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধে নেওয়া হয়েছে। পরিস্থিতি অনুযায়ী এসব সিদ্ধান্ত ক্রমাগত পরিবর্তন করা হবে।

করোনার ব্যাপক বিস্তার রোধে আপাতত আগামী ১০ দিন সৌদিতে যেসব কার্যক্রম স্থগিত করা হয়েছে, তা হলো :

১. বিবাহ অনুষ্ঠান, করপোরেট সভা এবং এর মতো সমস্ত অনুষ্ঠান, বনভোজন অনুষ্ঠান নিষিদ্ধ করা হয়েছে। তবে এসবের জন্য নিষেধাজ্ঞা ১০ দিন থেকে বেড়ে পরবর্তীতে ৩০ দিন হতে পারে।

২. অন্য সামাজিক অনুষ্ঠানে যেগুলোতে জনসমাগম হয় সেগুলোও আগামী ১০ দিনের জন্য নিষিদ্ধ।

৩. আগামী ১০ দিনের জন্য সমস্ত বিনোদনমূলক অনুষ্ঠান এবং ইভেন্টগুলোর স্থগিতাদেশ দেওয়া হয়েছে এবং এই স্থগিতাদেশ পরবর্তীতে বাড়ানো হতে পারে।

৪. আগামী ৩০ দিনের জন্য সিনেমা হল, অভ্যন্তরীণ বিনোদন কেন্দ্র, স্বতন্ত্র অভ্যন্তরীণ গেমের (ইনডোর গেম) জায়গা বা রেস্তোরাঁ, শপিংমল, জিম এবং স্পোর্টস সেন্টারে জনসমাগম বন্ধ করা হয়েছে। এসবের ক্ষেত্রেও স্থগিতাদেশ পরবর্তীতে বাড়তে পারে।

৫. রেস্তোরাঁ, ক্যাফে এবং এই জাতীয় খাওয়ার জায়গাগুলোতে ডাইনিং পরিষেবাদি বা সেখানে বসে খাওয়া আগামী ১০ দিনের জন্য স্থগিত করা হয়েছে, যা পরবর্তীতে আরও বাড়তে পারে। অর্থাৎ রেস্তোরাঁ বা ক্যাফেতে বসে খাওয়া যাবে না। তবে এদের পার্সেল বা হোম ডেলভারি সেবা চালু থাকবে স্বাভাবিক সময়ের মতো।

উল্লেখ্য, এর আগে গত ২ ফেব্রুয়ারি সৌদি আরব করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধে ২০টি দেশের নাগরিকদের সৌদিতে প্রবেশ স্থগিত ঘোষণা করে। অর্থাৎ সৌদি নাগরিক ব্যতীত ২০টি দেশ থেকে আসা সকল অভিবাসী, ডিপ্লোম্যাট, স্বাস্থ্যকর্মী এবং তাদের পরিবারের সৌদি আরবে প্রবেশে সাময়িক নিষেধাজ্ঞা জারি করে সৌদি সরকার। তবে ২০টি দেশের মধ্যে  নিষেধাজ্ঞার বাইরে রয়েছে বাংলাদেশ।

advertisement
Evaly
advertisement