advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

ভোটারদের মন জয়ের চেষ্টায় ব্যস্ত প্রার্থীরা

ভোলা (দক্ষিণ) প্রতিনিধি
২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ০০:০০ | আপডেট: ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ২১:৪১
advertisement

ভোলা পৌরসভার নির্বাচনকে সামনে রেখে জমে উঠেছে নির্বাচনী প্রচার। প্রার্থীদের প্রচার আর উঠান বৈঠকে সরগরম নির্বাচনী মাঠ। উন্নয়নসহ নানা প্রতিশ্রুতি দিয়ে ভোটারদের মন জয়ের চেষ্টা করছেন প্রার্থীরা। চায়ের কাপে বইছে নির্বাচনী আলোচনার ঝড়। দিন যত ঘনিয়ে আসছে ততই ভোটের উত্তাপ ছড়িয়ে পড়ছে নির্বাচনী এলাকায়। রাত-দিন ভোটারদের দ্বারে দ্বারে ঘুরছেন প্রার্থীরা। আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারি ভোলা ও চরফ্যাশন পৌরসভার ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে।

৯টি ওয়ার্ড নিয়ে গঠিত ভোলা পৌরসভায় মেয়র পদে তিন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এদের মধ্যে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী ও বর্তমান পৌর মেয়র মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান মনির, বিএনপি প্রার্থী হারুন অর রশিদ ট্রুম্যান ও ইসলামী আন্দোলনের প্রার্থী আতাউর রহমান মোমতাজি।

এ ছাড়া ৯টি ওয়ার্ডে সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৩৭ জন ও সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে ৮ জন লড়ছেন।

এদিকে ভোলা পৌরসভার ২০টি ভোটকেন্দ্রের মধ্যে ২০টিকেই অধিক ঝুঁকিপূর্ণ ঘোষণা করা হয়েছে। এসব কেন্দ্রে বাড়তি নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার থাকবে।

ভোলার পুলিশ সুপার সরকার মো. কায়সার বলেন, সুষ্ঠু পরিবেশে ভোটগ্রহণের লক্ষ্যে প্রশাসনের পক্ষ থেকে কঠোর নিরাপত্তা জোরদার থাকবে। গুরুপ্তপূর্ণ কেন্দ্রগুলোতে বাড়তি নিরাপত্তা দেওয়া হবে।

এদিকে পৌরসভায় এবারের নির্বাচনে ভোটকেন্দ্র ও ভোটার সংখ্যা বেড়েছে। গত নির্বাচনে এখানে কেন্দ্র ছিল ১৮টি। এবার কেন্দ্র হয়েছে ২০টি। একই সঙ্গে ভোটকক্ষের সংখ্যাও বেড়েছে। বিগত নির্বাচনে ১০৮টি কক্ষ থাকলেও এবার ১২২টি কক্ষ অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। যেখানে ৮টি অস্থায়ী ভোটকক্ষের সংখ্যা ৮টি। অন্যদিকে গত নির্বাচনে ভোলা পৌরসভায় ভোটার ছিল ৩১ হাজার ৩৬০ জন। বর্তমানে ভোটার সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩৬ হাজার ৯০৪ জন। গত নির্বাচনের তুলনায় এবার ভোটার বেড়েছে ৫ হাজার ৫৪৪ জন। যাদের মধ্যে পুরুষ ২ হাজার ৪০৬ জন ও নারী ভোটার ৩ হাজার ১৩৮ জন। সব মিলিয়ে এ নির্বাচনে মোট ভোটার ৩৬ হাজার ৯০৪ জন। পুরুষ ১৮ হাজার ৬৫১ জন এবং এবং নারী ১৮ হাজার ২৪৫ জন। নতুন ভোটার পুরুষের তুলনায় নারী ভোটার বেড়েছে। সহকারী রির্টানিং অফিসার মো. মিজানুর রহমান খান বলেন, ভোটের মাঠ এখন পর্যন্ত শান্ত রয়েছে, বড় ধরনের কোনো সহিংসতার ঘটনা নেই। তবে প্রার্থীরা যাতে আচারণবিধি মেনে চলে সে জন্য ৩ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োজিত আছেন। আমরা সুষ্ঠু পরিবেশে ভোটগ্রহণের লক্ষ্যে সব প্রস্তুতি নিয়েছি।

advertisement
Evaly
advertisement