advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

জ্বালানি তেলের লাগামহীন দাম, অভিনব প্রতিবাদ মমতার

অনলাইন ডেস্ক
২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ২২:১৯ | আপডেট: ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ২২:২৩
পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ছবি : সংগৃহীত
advertisement

লাগামহীনভাবে বাড়ছে পেট্রোল এবং ডিজেলের দাম। নাভিশ্বাস উঠেছে আমজনতার। আর এর প্রতিবাদেই অভিনব প্রতিবাদ জানালেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আজ বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে মমতা তার কালীঘাটের বাসভবন থেকে সচিবালয়ে নবান্নে যান গাড়ির পরিবর্তে ইলেকট্রিক স্কুটারে চেপে।

এ সময় মমতার গলায় ঝুলছিল প্রতিবাদী ব্যানার। রাজপথে মমতাকে ই-স্কুটারে দেখে রাস্তার দুইপাশে মানুষের ভিড় জমে যায়। তাদের উদ্দেশে হাত নাড়েন মমতা।

কিছুদিন ধরে লাগামহীনভাবে বেড়ে চলছে জ্বালানি তেলের দাম। পেট্রলের লিটার এখন প্রায় ৯২ রুপি। গত এক মাসে তিন দফায় রান্নার গ্যাসের দাম বেড়েছে ১০০ রুপি। এই পেট্রোপণ্যের মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে আজ পথে নেমেছেন মমতা। এদিন মমতার নিরাপত্তারক্ষীরাও ছিলেন ইলেকট্রিক স্কুটারে। তবে এই অভিনব প্রতিবাদে কোনো দলীয় পতাকা ছিল না।

সচিবালয়ে পৌঁছে মমতা ঘোষণা দেন, আগামীকাল শুক্রবার থেকে রাজ্যজুড়ে এই পেট্রোপণ্যের মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে ব্যাপক আন্দোলন শুরু হবে। তিনি মোদি সরকারকে ‘ভাঁওতাবাজ সরকার’ বলে সমালোচনা করেন। তিনি বলেন, ‘এবার এই পেট্রোপণ্যকে জিএসটির আওতায় আনতে হবে। আজ বাংলার রান্নাঘরে আগুন লেগেছে। ভোট এলে ওরা বলে বিনা মূল্যে গ্যাস দেবে। অথচ এখন উল্টো গ্যাসের দাম বাড়িয়ে দেয়। এর থেকে বড় ভাঁওতাবাজ সরকার নেই।’

একই সঙ্গে মোদির নামবদলের রাজনীতির কঠোর সমালোচনা করে মমতা বলেন, ‘এখন গুজরাটের মোতেরা স্টেডিয়ামের নাম বদলিয়ে রেখেছেন মোদি স্টেডিয়াম। মোদি সরকার দেশবিরোধী। আজ পারলে সব বিক্রি করে দেয়। নাম পাল্টে দেয়। এরা কোনো দিন না দেশের নামটিই পাল্টে দেন!’

advertisement