advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

ডিজিটাল আইন কবরে পাঠানোর সময় হয়েছে : ডা. জাফরুল্লাহ

নিজস্ব প্রতিবেদক
২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ২০:২১ | আপডেট: ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ০০:১৮
গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের ট্রাস্টি প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী। পুরোনো ছবি
advertisement

ডিজিটাল আইনকে কবরে পাঠানোর সময় হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের ট্রাস্টি প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী। তিনি বলেছেন, ‘গতকাল বৃহস্পতিবার কাশিমপুর কারাগারে ডিজিটাল আইনে কারাবন্দি মুক্তচিন্তার লেখক মুশতাক মারা গেছেন। তার মৃত্যুর জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে জনসম্মুখে ক্ষমা চাইতে হবে, বলতে হবে আমাদের ভুল হয়েছে। মুশতাকের পরিবারকে ৫০ লাখ টাকা এখনই ক্ষতিপূরণ দিতে হবে।’

আজ শুক্রবার সকালে ঢাকার তোপখানা রোডস্থ শিশু কল্যাণ পরিষদে মিলনায়তনে বাংলাদেশ শ্রমিক ফেডারেশনের সাধারণ সভা ও জাতীয় কাউন্সিলে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের ট্রাস্টি প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী এসব কথা বলেছেন। এসময় তিনি বলেছেন, ‘এখন সময় এসেছে ডিজিটাল আইনকে কবরে পাঠানো।’

ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, ‘একটা জাতি কতটা সভ্য, কতটা ন্যয়ভিত্তিক তা নির্ভর করে কৃষক ও শ্রমিকের সাথে তাদের ব্যবহারের উপর। আপনারা শ্রমিকরাই হলেন দেশ গড়ার কারিগর, আপনাদের সৃষ্টির উপর ভিত্তি করেই গড়ে উঠেছে বাংলাদেশ। আজকে যত বৈভব, যত বড় বড় স্বপ্ন তার প্রত্যেকটা ক্ষেত্রে অবদান রয়েছে আপনাদের।’ 

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের ট্রাস্টি প্রতিষ্ঠাতা বলেন, ‘আপনাদের কাছে থেকে মাত্র মাসিক ১০০ টাকা নিয়ে আপনাদের পুরো পরিবারের চিকিৎসার ব্যবস্থা আমরা করেছি। কোনো শ্রমিকের যদি মৃত্যু হয় তাকে ৫০ লাখ টাকার বিমা দেওয়া কোনো কঠিন কাজ না ৷ দেশের বাইরে যারা অক্লান্ত পরিশ্রম করছে তাদের দেখভাল করা রাস্ট্রের দায়িত্ব। গত কয়েক বছরে শুধুমাত্র কাতারেই হাজারের উপর শ্রমিক মারা গিয়েছে। তাদের প্রত্যককে ৫০ লাখ টাকা করে দেওয়া রাষ্ট্রের কর্তব্য।’

advertisement