advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

মেয়েকে জবাই করেন মা
সচেতনতামূলক কার্যক্রম বাড়ানো দরকার

১ মার্চ ২০২১ ০০:০০
আপডেট: ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ২২:৩৫
advertisement

সমাজে বিভিন্ন রকমের দ্বন্দ্ব-কলহ ও অর্থ-সম্পত্তির লোভে অবলীলায় খুন হচ্ছে মানুষ। এর মধ্যে আশঙ্কাজনক হারে বেড়ে চলেছে পারিবারিক হত্যাকা-। সাম্প্রতিক সময়ে আমাদের চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা ঘটনার মধ্যে গতকাল আমাদের সময়ের এক প্রতিবেদন সূত্রে জানা যায়, রংপুরের বদরগঞ্জ উপজেলার বিষ্ণুপুর ইউনিয়নের বুজরুক হাজিপুর গাছুয়াপাড়ায় গত শুক্রবার বিয়ে হয় না বলে নামাজরত মেয়েকে জবাই করেন মা জাহানারা বেগম। শনিবার দুপুরে ১৬৪ ধারায় দেওয়া জবানবন্দিতে ঘটনার বিস্তারিত তুলে ধরেন মা। মেয়েকে হত্যার কারণ হিসেবে জাহানারা জানিয়েছেন, মেয়ে মেরী মৃগীরোগে আক্রান্ত ছিল। এ কারণে তার বিয়ে হচ্ছিল না। তার চিকিৎসাতেও প্রচুর টাকা ব্যয় হয়। এসব কারণে মেরীর সঙ্গে পরিবারের সদস্যদের প্রায় সময়ই ঝগড়াঝাঁটি হতো। শুক্রবারও মা ও মেয়ের মধ্যে ঝগড়া হয়। এতেই ক্ষিপ্ত হন জাহানারা এবং আসরের নামাজ পড়ার সময় পেছন দিক থেকে জাপটে ধরে ধারালো ছুরি চালান নিজের মেয়ের গলায়। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় মেরীর। এর আগেও বাবা-মায়ের হাতে সন্তান হত্যার ঘটনা যেমন ঘটেছে, তেমনি সন্তানের হাতে বাবা-মাও খুন হয়েছে। পরকীয়ার কারণে স্বামীর হাতে স্ত্রী এবং স্ত্রীর হাতে স্বামী খুন হওয়ার ঘটনাও কম নয়। এক ভাই আরেক ভাইকে হত্যা করছে। দেখা যায় প্রতিটি ঘটনাই মামুলি বা তুচ্ছ কোনো কারণে। একটি ঘটনার নৃশংসতা ছাড়িয়ে যাচ্ছে আরেকটিকে। এসব কেবল আইনশৃঙ্খলার অবনতির দৃষ্টান্তই নয়, সামাজিক অসুস্থতারও লক্ষণ। মানুষের মূল্যবোধের অবক্ষয়, সহনশীলতা কমে যাওয়া ও সামাজিক অনুশাসনের অভাবে এ ধরনের নৃশংসতার প্রবণতা বাড়ছে। এ থেকে পরিত্রাণ পেতে হলে পরিবারের পাশাপাশি সমাজকে এগিয়ে আসতে হবে। ব্যক্তিগত দ্বিধা-দ্বন্দ্ব, ব্যবসায়িক লোভ-লালসা, জাগতিক হিংসা-বিদ্বেষ ভুলে আর্তমানবতার কল্যাণে মানবিকতা জাগিয়ে তুলতে হবে। কাজ করতে হবে সমাজ থেকে লোভ-লালসা, হিংসা-বিদ্বেষ, পরশ্রীকাতরতা দূর করতে মূল্যবোধের জায়গাগুলো নিয়ে। সেই সঙ্গে আইনের শাসন নিশ্চিত করতে হবে। এসব হত্যাকা-ের কঠোর শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে, যেন আর কোনোভাবেই এমন নৃশংসতার কথা কেউ চিন্তাও করতে না পারে। দেশ এবং মানুষের জীবনের স্বাভাবিকতা বজায় রাখার স্বার্থেই এটি জরুরি।

advertisement