advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

হল খোলার প্রস্তুতিতে ৫০ কোটি টাকা পাবে বিশ্ববিদ্যালয়গুলো

‘ ’

নিজস্ব প্রতিবেদক
১ মার্চ ২০২১ ২২:১৩ | আপডেট: ২ মার্চ ২০২১ ০১:১৫
ইউজিসি ভবন। পুরোনো ছবি
advertisement

করোনাভাইরাস মহামারির কারণে প্রায় এক বছর বন্ধ থাকার পর আগামী ২৪ মে খুলবে বিশ্ববিদ্যালয়। এর আগে ১৭ মে খুলে দেওয়া হবে আবাসিক হল। এর প্রস্তুতি হিসেবে ৫০ কোটি টাকা বরাদ্দ দিয়েছে সরকার। এ টাকায় শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিত করতে দেশের সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর আবাসিক হলে সংস্কারকাজ করা হবে। বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের (ইউজিসি) মাধ্যমে এ টাকা বরাদ্দ দেওয়া হবে।

মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব মো. মাহবুব হোসেন জানিয়েছেন, বিশ্ববিদ্যালয় ও হল খোলার আগে শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিত করা জরুরি। দীর্ঘদিন বন্ধ থাকার কারণে আবাসিক হলগুলো সংস্কার করা প্রয়োজন। এ জন্য সরকারের পক্ষ থেকে ৫০ কোটি টাকা বরাদ্দ দিতে ইউজিসিকে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। যেসব বিশ্ববিদ্যালয়ে আবাসিক হল আছে, তাদের জন্য এ বরাদ্দ দেওয়া হবে।

ইউজিসির সচিব ফেরদৌস জামান জানান, বিশ্ববিদ্যালয়ের হলগুলোর জন্য দেড়শ’ কোটি টাকা চাওয়া হয়েছিল। তবে ৫০ কোটি টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। এ টাকা ভাগ করে হল কর্তৃপক্ষকে বিতরণ করা হবে। শিক্ষার্থীর সংখ্যার অনুপাতে একেকটি হল অর্থ পাবে। অর্থপ্রাপ্তির দুই মাসের মধ্যে সংস্কারকাজ শেষ করতে হবে।

তিনি আরও জানান, সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যদের সঙ্গে আলোচনার ভিত্তিতে বরাদ্দের খাত চূড়ান্ত হবে। এরপর বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর কাছে টাকা পৌঁছে দেবে ইউজিসি। বরাদ্দের টাকা যাতে কেউ নয়ছয় করতে না পারে, সে বিষয়ে সতর্ক থাকবে ইউজিসি।

জানা গেছে, করোনাভাইরাস মহামারির কারণে এক বছর বন্ধ থাকায় সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক হলের অবকাঠামোর অনেক ক্ষতি হয়েছে। শিক্ষার্থীদের হলে ওঠানোর আগে সেসব ঠিকঠাক করা হবে। স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিতের ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এ জন্য কক্ষ পরিষ্কার ও রঙ করা, বাথরুম ও ডাইনিংয়ে নতুন বেসিন বসানো, হলের প্রবেশপথে জীবাণুনাশক টানেল বসানো, স্যানিটাইজ করার উপকরণ কেনাসহ বিভিন্ন কাজে বরাদ্দের টাকা কাজে লাগানো হবে।

advertisement