advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

গাড়ি আমদানিতে নির্দিষ্ট হারে শুল্ক নির্ধারণের প্রস্তাব

নিজস্ব প্রতিবেদক
৩ মার্চ ২০২১ ০০:০০ | আপডেট: ২ মার্চ ২০২১ ২২:২১
advertisement

ব্র্যান্ডনিউ গাড়ির সঙ্গে রিকন্ডিশন গাড়ি আমদানিতে স্পেসিফিক ডিউটি বা সুনির্দিষ্ট শুল্ক নির্ধারণের প্রস্তাব করেছে বাংলাদেশ রিকন্ডিশন্ড ভেহিক্যালস ইম্পোর্টার্স অ্যান্ড ডিলারস অ্যাসোসিয়েশন (বারভিডা)। গতকাল মঙ্গলবার জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) সঙ্গে প্রাক-বাজেট আলোচনায় সংগঠনের নেতারা সংশ্লিষ্ট খাতের পক্ষে বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধার প্রস্তাব উত্থাপন করেন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন এনবিআরের আয়কর নীতির সদস্য মো. আলমগীর হোসেন।

জাতীয় বাজেটে বিবেচনার জন্য বারভিডা অবচয় হার পুনর্নির্ধারণ, সিসি সø্যাব ও সম্পূরক শুল্কের হার পুনর্বিন্যাস, ফসিল ফুয়েল গাড়ি, রিকন্ডিশন গাড়ির সংজ্ঞা নির্ধারণ, অবচয় প্রদানের উদ্দেশ্যে গাড়ির বয়স গণনা পদ্ধতি সংশোধন, বেশিসংখ্যক যাত্রী পরিবহনে ব্যবহৃত মাইক্রোবাসের সম্পূরক শুল্ক প্রত্যাহার,

পাবলিক ট্রান্সপোর্টের আমদানি শুল্ক কমানো, পিকআপ, ডাম্প ট্রাক, ফায়ার ফাইটিং ভেহিক্যালসহ অন্যান্য বিশেষায়িত মোটরযানের আমদানি শুল্ক কমানো এবং আমদানি করা রিকন্ডিশন মোটরযান বিক্রি ও বিপণনে বিশেষ ভ্যাট প্রদান নীতিমালা প্রণয়ন সংক্রান্ত প্রস্তাব করে।

সংগঠনের সভাপতি আবদুল হক বলেন, অনেক দেশে নির্দিষ্ট শুল্কারোপের নজির রয়েছে। সিসি ও মোটরযানের প্রকৃতিভেদে স্পেসিফিক ডিউটি আরোপ করা যেতে পারে। সমপ্রকৃতির ব্র্যান্ডনিউ মোটরযানের ওপর আরোপিত স্পেসিফিক ডিউটি থেকে বছরভেদে ও গাড়ির প্রকৃতিভেদে এক বছরের পুরনো ১০ শতাংশ, দুই বছরের পুরনো ২০ শতাংশ, তিন বছরের পুরনো ৩০ শতাংশ, চার বছরের পুরনো ৪০ শতাংশ এবং পাঁচ বছরের পুরনো ৫০ শতাংশ হারে অবচয় প্রদানপূর্বক রিকন্ডিশন গাড়ির শুল্কায়ন মূল্য নির্ধারণের প্রস্তাব করেছি।

সভায় বারভিডার সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ শহিদুল ইসলাম, সহসভাপতি সাইফুল ইসলাম (সম্রাট), জসিমউদ্দিন মিন্টু, যুগ্ম সম্পাদক মোহাম্মদ মোকলেসুর রহমানসহ আরও অনেকে উপস্থিত ছিলেন। এনবিআরের পক্ষ থেকে উপস্থিত ছিলেন শুল্ক ও ভ্যাট প্রশাসন বিভাগের সদস্য মো. সাইফুল ইসলাম, শুল্ক নীতি ও আইসিটি বিভাগের সদস্য সৈয়দ গোলাম কিবরিয়াসহ বাজেট সংশ্লিষ্টরা।

advertisement