advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

মুক্তি মিলছে তামিমদের

ক্রীড়া প্রতিবেদক
৪ মার্চ ২০২১ ০০:০০ | আপডেট: ৩ মার্চ ২০২১ ২২:১৮
advertisement

অবশেষে ‘জেলখানা’ থেকে মুক্তি মিলছে তামিম, মাহমুদউল্লাহদের। নিউজিল্যান্ডে তৃতীয় দফা কোভিড-১৯ পরীক্ষায় বাংলাদেশের সবার রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে। এ কারণে তাদের অনুশীলনে নামতে আর কোনো বাধা নেই। গতকাল প্রথমবার দলগতভাবে জিম সেশন করতে পেরেছেন টাইগাররা। আজ থেকে শুরু হবে অনুশীলন। ক্রাইস্টচার্চের অদূরে লিঙ্কন গ্রুপ ইনে সাত জনের (৫ জন ক্রিকেটার, ২ জন সাপোর্ট স্টাফের সদস্য) গ্রুপে ভাগ হয়ে অনুশীলন শুরু করবেন তামিম, মাহমুদউল্লাহরা।

নিউজিল্যান্ডে কোয়ারেন্টিনের সময়টা কঠিন। সেলফ আইসোলেশনে থাকার এ সময়টা একদম রুমবন্দি হয়ে থাকতে হয়েছে তাদের। প্রথম ৪৮ ঘণ্টা তো রুম থেকে বেরই হতে পারেননি। এর পর করোনা পরীক্ষা দিয়ে রিপোর্ট নেগেটিভ আসলে বাইরে বের হওয়ার অনুমতি পান। ৫-৬ জনের গ্রুপে ভাগ হয়ে প্রতিদিন ৩০ মিনিটের জন্য তারা বাইরে হাঁটতে বের হতেন। সাড়ে ২৩ ঘণ্টার মতো তাদের রুমের মধ্যেই বন্দি হয়ে থাকতে হতো। এ সময়টাকে খেলোয়াড়রা ‘জেলখানার’ সঙ্গে তুলনা করেছেন। অবশেষে তারা মুক্ত বাতাসে বের হওয়ার সুযোগ পাচ্ছেন। জিম, অনুশীলন শুরু হলে মানসিকভাবে চাঙ্গা হয়ে উঠবেন টাইগাররা। তাই স্বস্তির হাওয়া বইছে টাইগার শিবিরে।

বিসিবির পাঠানো ভিডিও বার্তায় মোহাম্মদ মিঠুন বলেন, ‘এত দিন আমাদের চলাফেরায় অনেক বাধা ছিল। এখন আস্তে আস্তে নরমাল হচ্ছে। আজকে জিম করার সুযোগ পেয়েছি। এক সপ্তাহ পর জিম ব্যবহার করতে পেরে ভালো লাগছে।’ সেলফ আইসোলেশনে থাকার এ দিনগুলো অনেক কষ্টের ছিল বলে জানান মিঠুন। তিনি বলেন, ‘সারাদিন ঘরের মধ্যে থেকে খুব বেশি কিছু করার নেই। আমরা এখানে একটি সিরিজ খেলতে এসেছি। কালকে (আজ) থেকে মাঠে যেতে পারব, ভাবতেই আলাদা ভালো লাগা কাজ করছে। কাল থেকে আমরা যখন ক্রিকেট ট্রেনিংয়ে ফিরব তখন আস্তে আস্তে মানিয়ে নিতে পারব।’

তিনি আরও বলেন, ‘এখনকার আবহাওয়া খুবই ভালো। আগে এখানে আবহাওয়ার কারণে যে ভুগতে হতো, এ রকম আবহাওয়া থাকলে এবার আশা করি সেটা হবে না।’ অবশ্য এখনই পুরোপুরি মুক্তি মিলছে না টাইগারদের। অনুশীলন শেষে আবার তারা রুমে গিয়ে বন্দি থাকবেন। ৭ দিন পর তাদের আবারও করোনা পরীক্ষা করানো হবে। রিপোর্ট নেগেটিভ আসলে তবেই পুরোপুরি মুক্তি মিলবে। তখন আর বায়ো বাবল মানতে হবে না। মিঠুন জানান, ১৪ দিন পর মুক্ত হয়ে ঘোরাফেরা করতে পারব। এটা ভেবে ভালো লাগছে। প্রসঙ্গত, ২০ মার্চ প্রথম ওয়ানডে দিয়ে মাঠে গড়াবে সিরিজ। বাংলাদেশ দল এখন ক্রাইস্টচার্চে আছে। তারা ১২ মার্চ যাবে কুইন্সটাউনে। সেখানে ৫ দিনের অনুশীলন। এর পর প্রথম ওয়ানডের ভেন্যু ডুনেডিনে যাবে ১৭ মার্চ।

advertisement