advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

শতাধিক গ্রাহকের ৫০ লাখ টাকা নিয়ে ‘উধাও’ এনজিও

দাগনভূঞা (ফেনী) প্রতিনিধি
৪ মার্চ ২০২১ ১৩:৪৭ | আপডেট: ৪ মার্চ ২০২১ ১৪:০৩
advertisement

ফেনীর দাগনভূঞা উপজেলায় অসহায় ও হতদরিদ্র শত শত গ্রাহকের প্রায় ৫০ লাখ টাকা মেরে উধাও হয়ে গেছে ‘সকস বাংলাদেশ’ নামে একটি এনজিও। মোটা অঙ্কের ঋণের প্রলোভন দেখিয়ে টাকা হাতিয়ে নেয় এনজিওটি। ফলে জীবনের সঞ্চয় হারিয়ে গ্রাহকরা এখন দিশেহারা হয়ে বিভিন্ন জনের দ্বারে দ্বারে ঘুরছেন। এমন ঘটনায় গতকাল বুধবার বিকেলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) নাহিদা আক্তার তানিয়া ঘটনাস্থলে গিয়ে প্রতিষ্ঠানটি সিলগালা করে দিয়েছে।

ভুক্তভোগীদের অভিযোগ, উপজেলা পরিষদ সংলগ্ন স্বপন হোটেল নামের একটি ভবনের দ্বিতীয় তলায় অফিস ভাড়া নিয়ে কার্যক্রম শুরু করে ‘সকস বাংলাদেশ’ নামে ভুয়া একটি এনজিও। অফিস কর্তৃপক্ষ সহজ শর্তে ঋণ দেওয়ার কথা বলে ১০, ২০, ৫০ হাজার টাকা করে সঞ্চয় নেয়। একপর্যায়ে তারা গতকাল বুধবার ঋণ নিতে এসে দেখেন অফিসে তালা ঝুলছে। প্রতারকরা রাতেই গ্রাহকদের টাকা ও অফিসের মালামাল নিয়ে লাপাত্তা হয়ে যায়।

এ ঘটনায় গতকালর ক্ষুব্ধ গ্রাহকরা মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করেছেন। একপর্যায়ে হাসিনা মমতাজ নামে এক ভুক্তভোগী থানায় লিখিত অভিযোগ দিলে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন দাগনভূঞা থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আরিফ হোসেন। তিনি বলেন, ‘পুলিশ প্রতারকদের শনাক্ত করাসহ টাকা লেনদেনের বিষয় খতিয়ে দেখছে।’

ইউএনও নাহিদা আক্তার তানিয়া বলেন, ‘গ্রাহকদের অভিযোগ পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে প্রতিষ্ঠানটি সিলগালা করে দিয়েছি।’ এসময় ভুক্তভোগীদের সঙ্গে কথা বলে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দেন তিনি।

advertisement