advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

নিউজিল্যান্ডে ৭ দশমিক ২ মাত্রার ভূমিকম্প, সুনামির সতর্কতা প্রত্যাহার

৪ মার্চ ২০২১ ২৩:৪৪
আপডেট: ৫ মার্চ ২০২১ ০১:২৪
ছবি : ইউএসজিএস
advertisement

নিউজিল্যান্ড উপকূলে আঘাত হেনেছে ৭ দশমিক ২ মাত্রার  শক্তিশালী ভূমিকম্প। এর জেরে সেখানে জরুরি সুনামি সতর্কতা জারি করেছিল প্রশান্ত মহাসাগরীয় সুনামি সতর্কতা কেন্দ্র (পিটিডব্লিউসি)। তবে এ সতর্ক বার্তা প্রত্যাহার করেছে সংস্থাটি। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম গার্ডিয়ানের প্রতিবেদনে এ তথ্য  জানানো হয়েছে।

জানা যায়, স্থানীয় সময় শুক্রবার ভোররাত আড়াইটার দিকে আঘাত হানা ভূমিকম্পের উৎপত্তিস্থল ছিল নর্থ আইল্যান্ডের জিসবর্ন শহর থেকে ১৪৮ মাইল দূরে এবং সাগরের ৬ দশমিক ২ মাইল গভীরে।

গার্ডিয়ানের প্রতিবেদনে বলা হয়, ভূমিকম্পের পর পিটিডব্লিউসি সুনামির সতর্কতা জারি করেছিল। তবে তা প্রত্যাহার করে সংস্থাটি বলেছে, ‘এ ভূমিকম্পের পর সুনামির কোনো আশঙ্কা নেই।’

প্রতিবেদনে বলা হয়, সুনামির সতর্কতা প্রত্যাহার করা হলেও উপকূলীয় অধিবাসীদের সতর্কতা অবলম্বন করতে বলা হয়েছে। উপকূলীয় বাসিন্দাদের উঁচু স্থানে সরিয়ে নেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

নিউজিল্যান্ডের জাতীয় জরুরি ব্যবস্থাপনা সংস্থা প্রাথমিকভাবে ভূকম্পনের মাত্রা ৭ দশমিক ২ জানিয়েছে। সংস্থাটি সমুদ্র এবং স্থলভাগ উভয় এলাকাতেই সুনামি সতর্কতা জারি করেছিল। নর্থ আইল্যান্ডের পূর্ব উপকূল থেকে কেপ রানঅ্যাওয়ের টোলাগা সৈকত পর্যন্ত জলোচ্ছ্বাসে তলিয়ে যেতে পারে বলে হুঁশিয়ারি দেয়। পরে এক বিবৃতিতে সুনামির সতর্ক বার্তা প্রত্যাহার করা হয়েছে।

ভূমিকম্পে তাৎক্ষণিকভাবে কোনো ক্ষয়ক্ষতি ও হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি। এর আগে ২০১১ সালে নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে ৬ দশমিক ৩ মাত্রার এক ভূমিকম্পে অন্তত ১৮৫ জন প্রাণ হারিয়েছিলেন। এসময় বিধ্বস্ত হয়েছিল শহরটির বিশাল এলাকা।

advertisement