advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

দেখতে খারাপ তাই হাসাহাসি, সার্জারিতে চেহারা বদল

অনলাইন ডেস্ক
৫ মার্চ ২০২১ ১০:৫৩ | আপডেট: ৫ মার্চ ২০২১ ১১:০৫
সংগৃহীত ছবি
advertisement

গিয়েছিলেন চাকরির ইন্টারভিউ দিতে। দেখতে খারাপ হওয়ায় অনেকেই নাকি তাকে নিয়ে হাসাহাসি করেন। নিজেকে এভাবে ‘হাসির পাত্র’ হতে দেখে খুবই খারাপ লেগেছিল তার। আর সে কারণেই টানা ৯ বার প্লাস্টিক সার্জারি করে নিজের মুখের আদলই পরিবর্তন করে ফেললেন ভিয়েতনামের যুবক ডো কোয়েইন।

২৬ বছর বয়সী ডো টিকটক অ্যাকাউন্টে নিজের আগের ছবি এবং ৯টি প্লাস্টিক সার্জারির পর বর্তমান ছবি পোস্ট করেন। আর সেটা দেখার পরই অবাক হয়ে যান নেটিজেনরা। কারণ ছবিগুলো একবারে ভিন্ন ভিন্ন। এরপরই তা মুহূর্তেই ভাইরাল হয়ে যায়।

শেষপর্যন্ত ডো নিজেই সত্যিটাও জানিয়ে দেন। একটি চাকরির ইন্টারভিউ দিতে গিয়ে দেখতে খারাপ হওয়ায় সবাই তাকে উপহাস করে। এ কারণেই প্লাস্টিক সার্জারির করার বিষয়ে মনস্থির করেন তিনি। শেষপর্যন্ত ৪০০ মিলিয়ন ডং বা বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ১৫ লাখ টাকা খরচ করে নয়টি প্লাস্টিক সার্জারি করান। যার মধ্যে ছিল রিনোপ্লাস্টি, চিবুক, ঠোঁটের অস্ত্রোপচারও। এছাড়া করিয়েছেন চোখের জন্য ডাবল আইলড সার্জারিও।

এক সাক্ষাৎকারে তিনি আরও জানান, এই অস্ত্রোপচারের পুরো টাকাই নিজের সঞ্চয় থেকে ব্যয় করেছেন তিনি। প্রথমবার অস্ত্রোপচারের পর কেমন ছিল অভিজ্ঞতা? এমন প্রশ্নের উত্তরে ডো বলেন, ‘প্রথমবার অস্ত্রোপচার করিয়ে বাড়ি আসার পর আমার মা-বাবাও আমাকে চিনতে পারেননি।’ তবে এই ধরনের প্লাস্টিক সার্জারি করায় কিছুটা অনুতপ্তও তিনি। তবে বাধ্য হয়েই এ কাজ করেছেন বলে জানান ডো কোয়েইন।

advertisement