advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

অস্ট্রেলিয়ার টিকা আটকালো ইতালি

নিজস্ব প্রতিবেদক
৫ মার্চ ২০২১ ১১:৫২ | আপডেট: ৫ মার্চ ২০২১ ১৪:৩৩
ছবি: বিবিসি
advertisement

ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত দেশ ইতালির কারখানায় অস্ট্রেলিয়াতে পাঠানোর জন্য অ্যাস্ট্রাজেনেকার যে টিকা তৈরি হচ্ছিল, তা আটকে দিয়েছে দেশটির সরকার। কারণ হিসেবে তারা বলছে, ইইউর সাথে চুক্তি অনুযায়ী প্রতিষ্ঠানটি যে পরিমাণ টিকা দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল, তা না দিয়ে অন্য দেশে টিকা রপ্তানির চেষ্টা করায় তা আটকে দেওয়া হয়েছে।

এক প্রতিবেদনে এ খবর দিয়েছে যুক্তরাজ্যভিত্তিক সংবাদমাধ্যম বিবিসি। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, টিকা আটকে দেওয়ার ইস্যুতে ইতালিকে পূর্ণ সমর্থন দিচ্ছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন। ফলে, প্রস্তুতকৃত দুই লাখ ৫০ হাজার করোনার টিকা পাচ্ছে না অস্ট্রেলিয়া।

ইইউর সঙ্গে অ্যাস্ট্রাজেনেকার দীর্ঘদিন ধরেই বিবাদ চলছে। নামপ্রকাশে অনিচ্ছুক ইইউর এক কর্মকর্তা সংবাদসংস্থা রয়টার্সকে জানিয়েছেন, অ্যাস্ট্রাজেনেকা তাদের টিকা না দিয়ে বিদেশে বিক্রি করছে, এমন অভিযোগ তাদের কাছে এসেছে। সে কারণে সংস্থাটির উপর নজর রাখা হচ্ছে। ইতালির ঘটনায় সেই অভিযোগ অনেকটাই প্রকাশ পেল।

তবে অ্যাস্ট্রাজেনেকার পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, বছরের দ্বিতীয় চার মাসেও মোট টিকার অর্ধেকের বেশি তারা দিতে পারবে না। এর কারণ, যে পরিমাণ কাঁচামাল প্রয়োজন ছিল, তা সংগ্রহ করা যায়নি।

গতকাল বৃহস্পতিবার ইতালির সদ্য নির্বাচিত প্রধানমন্ত্রী জানিয়েছেন, দেশের কারখানায় তৈরি হওয়া অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা অস্ট্রেলিয়ায় পাঠানোর ব্যবস্থা করা হচ্ছিলো। কিন্তু সরকার তা রপ্তানির উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করে। এর কারণ, অ্যাস্ট্রাজেনেকা ইউরোপীয় ইউনিয়নকে যে পরিমাণ টিকা দেওয়ার আশ্বাস দিয়েছিল, তার অর্ধেক টিকা এখনো পর্যন্ত দিতে পেরেছে। বাকি টিকা না দিয়ে তারা অন্যকে টিকা দিতে পারে না।

করোনাকালেই ইউরোপীয় ইউনিয়নে একটি আইন তৈরি হয়েছে। তাদের জন্য তৈরি টিকার চাহিদা পূরণ না করে কোনো সংস্থা বিদেশে ব্যবসায়িক কারণে টিকা রপ্তানি করতে পারবে না। সেই আইনেই ইতালি অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা আটকে দিলো।

এদিকে বিশ্ব স্বস্থ্য সংস্থা (ডাব্লিউএইচও) বার বার অভিযোগ করছে, টিকার সমবণ্টন হচ্ছে না। সকলে সমানভাবে টিকা পাচ্ছে না। ইতালির ঘটনা নতুন করে বিতর্ক তৈরি করে কী-না, সেটাই এখন দেখার বিষয়।

advertisement