advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

তৃতীয় ধাপের পরীক্ষায় ভারত বায়োটেকের কোভাক্সিন ৮১ শতাংশ কার্যকর

অনলাইন ডেস্ক
৫ মার্চ ২০২১ ১৮:৩০ | আপডেট: ৫ মার্চ ২০২১ ১৯:২৩
ছবি : সংগৃহীত
advertisement

করোনাভাইরাসের টিকা কোভাক্সিন’র তৃতীয় ধাপের ট্রায়ালের ফলাফল প্রকাশ করেছে ভারতীয় ভ্যাকসিন প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান ভারত বায়োটেক। অন্তবর্তীকালীন এ ট্রায়ালের ফলাফলে দেখা গেছে, ভ্যাকসিনটি করোনাভাইরাস প্রতিরোধ ৮১ শতাংশ পর্যন্ত কার্যকর। ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম ইন্ডিয়া টুডের প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

ভারত বায়োটেকের বরাত দিয়ে ইন্ডিয়া টুডের প্রতিবেদনে বলা হয়, কোভ্যাকসিন’র ফেজ-৩ ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালে ২৫ হাজার ৮০০ জন অংশ নেয়। করোনার টিকার কার্যকারিতা পরীক্ষায় এটি এখন পর্যন্ত ভারতের সবথেকে বড় ট্রায়াল। ইন্ডিয়া কাউন্সিল অব মেডিকেল রিসার্চের (আইসিএমআর) সহযোগিতায় এ ট্রায়াল পরিচালনা করা হয়।’

ভারত বায়োটেক বলছে, ‘কোভ্যাক্সিন করোনা প্রতিরোধে ৮১ শতাংশ পর্যন্ত কার্যকর। প্রথম অন্তবর্তীকালীন বিশ্লেষণের পর এই ফলাফল এসেছে।’

ভারত বায়োটেকের চেয়ারম্যান ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডা. কৃষ্ণ এলা বলেছেন, ‘আমরা ফেজ-৩ ক্লিনিকাল ট্রায়ালের ফলাফল পেয়েছি। আমরা এখন ফেজ ১ ও ২ থেকে প্রাপ্ত তথ্য নিয়ে রিপোর্ট প্রদান করতে পারব।’

ডা. এলা আরও বলেন, ‘কোভিড-১৯ প্রতিরোধে উচ্চতর ক্লিনিক্যাল কার্যকারিতা ছাড়াও কোভ্যাক্সিন করোনার দ্রুত পরিবর্তনশীল রূপগুলো প্রতিরোধে উল্লেখযোগ্য প্রতিরোধ ক্ষমতা তৈরি করবে।’

কোভ্যাক্সিন ভারতের নিজস্ব পক্রিয়ায় উদ্ভাবিত ভ্যাকসিন। এটি জরুরি প্রয়োগে ভারত সরকারের অনুমোদন পেয়েছে। অক্সফোর্ড ও অ্যাস্ট্রাজেনেকা উদ্ভাবিত কোভিশিল্ড ভ্যাকসিনটি ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউট প্রস্তুত করেছে। এটি দ্বিতীয় ভ্যাকসিন হিসেবে ভারতে জরুরি ব্যবহারের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি দিল্লিতে কোভ্যাক্সিন এর প্রথম ডোজ নিয়েছেন।

কোভাক্সিনের তৃতীয় ধাপের পরীক্ষায় ২৫ হাজার ৮০০ জন অংশ নিয়েছিলেন। অংশগ্রহণকারীদের বয়স ১৮-৯৮ বছরের মধ্যে। এদের মধ্যে ২ হাজার ৪৩৩ জনের বয়স ৬০ এর উপরে এবং ৪ হাজার ৫০০ জনের ‘কোমরবিডিটি’ ছিল।

advertisement