advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

বাজারে নতুন রূপে লাক্স

নিজস্ব প্রতিবেদক
৭ মার্চ ২০২১ ১৬:২৫ | আপডেট: ৭ মার্চ ২০২১ ১৬:২৫
advertisement

ইউনিলিভার বাংলাদেশ লিমিটেডের (ইউবিএল) প্রথম প্রসাধনী ব্র্যান্ড লাক্স ‘মুনস্ট্রাক ইভেনিং’ বা ‘চন্দ্রালোক সন্ধ্যা’ শিরোনামে বর্ণিল অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে। এ উপলক্ষে রাজধানীর রেডিসন ব্লু ঢাকা ওয়াটার গার্ডেনে মিলিত হন দেশের জনপ্রিয় তারকারা।

লাক্সের ঐতিহ্য ও জাদুকরি কমনীয়তা সাহসিকতার সঙ্গে নারীকে উপস্থাপন করে। বাংলাদেশে ৫০ বছরের বেশি সময়ের দীর্ঘ ও ঘটনাবহুল পথচলায় নারীদের আত্মবিশ্বাসী ও আকর্ষণীয় দেখানোর মাধ্যমে লাক্স তাদের প্রতিদিন নতুন করে চিনতে সাহায্য করে চলছে। এ সময় লাক্সের সঙ্গী হয়েছেন দেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় তারকারা।

মোহনীয় সুবাস ও ত্বকের যত্মের মাধ্যমে লাক্স নারীদের প্রচলিত দৃষ্টিভঙ্গির বাইরেও বিশেষ কিছু হতে সাহায্য করে। বাংলাদেশের প্রতি ১০০ পরিবারের মধ্যে ৯৪টি পরিবার লাক্স পণ্য ব্যবহার করছেন। সেরা সুবাসের লাক্স ত্বকের যত্মের মাধ্যমে নারীদের নিজের প্রতি আরও যত্মশীল করছে। 

ইউনিলিভার বাংলাদেশের বিউটি অ্যান্ড পার্সোনাল কেয়ার ডিরেক্টর আফজাল খান লাক্সের দীর্ঘ ঐতিহ্য তুলে ধরার মাধ্যমে অনুষ্ঠানের শুরু করেন। এরপর প্রতিষ্ঠানটির স্ক্রিন ক্লিনজিং-ক্যাটাগরি হেড নাবিলা জাবিন খান লাক্সের নতুন এই পথচলা সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য তুলে ধরেন। সবশেষে ইউনিলিভার বাংলাদেশের চেয়ারম্যান ও ম্যানেজিং ডিরেক্টর কেদার লেলে জমকালো আয়োজনের মধ্য দিয়ে ব্র্যান্ডটির নতুন পণ্য উন্মোচন করেন।

লাক্স তারকারা

 

জমজমাট এই অনুষ্ঠানে লাক্সের ভিন্ন ভিন্ন গৌরবময় সময়কে তুলে ধরা হয়। এরপর ‘লাক্স-স্ট্রাক লাইফ’ শিরোনামে বিশেষ একটি পর্ব উপভোগ করেন অতিথিরা, যার অংশ হিসেবে লাক্স তারকারা তাদের স্মৃতি রোমন্থন করেন।

অনুষ্ঠানটি শেষ হয় জনপ্রিয় শিল্পী এলিটা করিমের গান এবং হৃদি শেখের জমকালো নাচের মাধ্যমে। আয়োজনে লাক্সের অতীত ও বর্তমানের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর ছাড়াও জনপ্রিয় তারকারা উপস্থিত ছিলেন। তারা লাক্সের সঙ্গে গৌরবময় পথচলার স্মৃতি ও জীবনে তা প্রতিফলনের কথা স্মরণ করেন। ১৯২৫ সাল থেকে লাক্স সৌন্দর্যের সেরা উপাদানকেই প্রাধান্য দিয়েছে, যা সন্তুষ্ট করে আসছে বিশ্বের সব নারীদের।

অনুষ্ঠানে ইউনিলিভার বাংলাদেশের চেয়ারম্যান ও ম্যানেজিং ডিরেক্টর কেদার লেলে ব্র্যান্ডটির নতুন যুগের কথা উল্লেখ করে বলেন, ‘ব্র্যান্ডটির নতুন সময়ের এই উৎসবমুখর পুনর্মিলনী সবাইকে স্বাগত জানিয়ে আমি আনন্দিত। লাক্স শুরু থেকে অনুকরণীয় ব্যক্তিত্ব তৈরি ও সৌন্দর্যের মান নির্ধারণে ছাপ রেখে আসছে। আমরা বিশ্বাস করি এই ঐতিহাসিক মুহূর্তের মাধ্যমে লাক্স নতুন যুগে প্রবেশ করছে এবং ব্র্যান্ডটি তার গৌরবময় পথচলা অব্যাহত রাখবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘লাক্স একটি ব্র্যান্ডের চেয়েও বেশি। এটি এমন একটি ব্র্যান্ড যা প্রতিনিয়ত নতুন অভিজ্ঞতায় সমৃদ্ধ করে। প্রতিদিন বিশ্বের প্রায় আড়াই’শ কোটি মানুষ নিজেদের সৌন্দর্য প্রকাশ করতে, স্নিগ্ধ অনুভব করতে ও জীবনকে সাজাতে ইউনিলিভারের পণ্য ব্যবহার করেন। একটি বহুমুখী ব্র্যান্ড হিসেবে ইউনিলিভারের লাক্স নারীর জীবনে ইতিবাচক প্রভাব রাখার দায়বদ্ধতা অনুভব করে এবং তার জন্য গর্ববোধ করে।’

advertisement