advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

মেয়ের সামনেই বাসচাপায় মায়ের মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিবেদক
৭ মার্চ ২০২১ ১৮:৪২ | আপডেট: ৭ মার্চ ২০২১ ২১:০৭
পুরোনো ছবি
advertisement

রাজধানীর গুলিস্তানে গোলাপ শাহ মাজার এলাকায় রাস্তা পার হওয়ার সময় একটি যাত্রীবাহী বাসের চাপায় মেয়ের সামনে মায়ের মৃত্যু হয়েছে। নিহতের নাম পারভীন বেগম (৪০)। আজ রোববার দুপুর একটায় সময় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

মেয়ে সুমাইয়া ও পথচারী রেড ক্রিসেন্টের কর্মী হুমায়ুন কবির মুমূর্ষু অবস্থায় পারভীনকে উদ্ধার করে দুপুর পৌনে ২টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

পারভীন বেগমের মেয়ে সুমাইয়া বলেন, ‘আমার বাত জ্বর। মাকে সঙ্গে করে মুন্সীগঞ্জ থেকে এসে শহীদ সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে ডাক্তার দেখিয়ে বাড়ি ফিরছিলাম।গুলিস্তানে গাড়ি থেকে নেমে মুন্সীগঞ্জের গাড়িতে ওঠার জন্য দুজনে রাস্তা পারাপারের সময় মল্লিক পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাস মাকে চাপা দেয়। এতে তিনি গুরুতর আহত হন। একটু পেছনে থাকায় আমার কোনো কিছু হয়নি। পরে মাকে মেডিকেলে নিয়ে আসলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।’

পথচারী হুমায়ুন কবির জানান, পারভীন বেগম মল্লিক পরিবহনের বাসে চাপা খেয়ে গুরুতর আহত হযন। মেডিকেলে নিয়ে আসা হলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

খবর পেয়ে নিহতের স্বামী আব্দুল বাসেত ঢামেকে এসে স্ত্রীকে মৃত অবস্থায় দেখতে পান। তিনি জানান, তার মেয়ে সুমাইয়ার বাত জ্বরের কারণে মায়ের সঙ্গে হাসপাতালে ইনজেকশন নিতে গিয়েছিল। বাসায় ফেরার পথে গুলিস্তানে দুর্ঘটনার শিকার হয়।

ঢামেক পুলিশ ক্যাম্পের পুলিশ পরিদর্শক বাচ্চু মিয়া জানান, মৃতদেহটি ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, নিহত পারভীন মুন্সীগঞ্জ জেলার সিরাজদি খান উপজেলার রাজদিয়া গ্রামের আব্দুল বাসেতের স্ত্রী। তিনি ছিলেন দুই মেয়ে সন্তানের মা।

advertisement