advertisement
advertisement

সব খবর

advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

সরকারি নির্দেশনা উপেক্ষা করেই কওমির পরীক্ষা নেওয়া হচ্ছে

নিজস্ব প্রতিবেদক
৮ এপ্রিল ২০২১ ০০:০০ | আপডেট: ৮ এপ্রিল ২০২১ ০১:২৬
পুরোনো ছবি
advertisement

করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় কওমিসহ সব মাদ্রাসা বন্ধ রাখার নির্দেশ সরকারের। অথচ সেই নির্দেশনাকে উপেক্ষা করে বর্তমান লকডাউন পরিস্থিতিতেও চলছে মাস্টার্স সমমান দাওরায়ে হাদিস পরীক্ষা। কওমি মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ড ‘আল হাইআতুল উলইয়া লিল জামিয়াতিল কওমিয়া বাংলাদেশ’ অবশ্য বলছে, স্বাস্থ্যবিধি মেনেই নেওয়া হচ্ছে সব পরীক্ষা।

কওমি মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের কার্যকরী সদস্য মুফতি নুরুল আমিন বলেন, ‘গত ৩ এপ্রিল থেকে আমাদের এ পরীক্ষা কার্যক্রম চলমান রয়েছে। সরকারি নির্দেশনা মোতাবেক স্বাস্থ্যবিধি মেনে পরীক্ষা আয়োজন করা হচ্ছে। বর্তমান লকডাউন পরিস্থিতির কারণে অবশ্য পরীক্ষা সংক্ষিপ্ত করা হয়েছে। বুধবারও দুই শিফটে নেওয়া হয়েছে। ফলে আগামী রবিবার পরীক্ষা শেষ হওয়ার কথা থাকলেও শেষ হচ্ছে বৃহস্পতিবারই (আজ)।’

লকডাউনের মধ্যে পরীক্ষা আয়োজন তো সরকারি নির্দেশনা অমান্য- এ বিষয়ে মুফতি নুরুল আমিন বলেন, ‘কওমি শিক্ষায় সরকারি নির্দেশনা অমান্য করে কোনো কার্যক্রম পরিচালনা করা হয় না। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাদ্রাসা ও কারিগরি বিভাগ থেকে যে নির্দেশনা জারি করা হয়েছে, সেটি আমাদের মুরব্বিরা পর্যালোচনা করেছেন। আর সেটিকে গুরুত্ব দিয়েই আমাদের পরীক্ষাগুলো সংকোচনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।’

‘সরকার সব আবাসিক ও অনাবাসিক মাদ্রাসা বন্ধ রাখার বিষয়ে পুনরায় নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে’- এ বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘সরকারের ওই নির্দেশনা আমাদের কাছে আছে। সেখানে পরীক্ষা বন্ধের ব্যাপারে কোনো কথা নেই। আমাদের আবাসিক-অনাবাসিক সব প্রতিষ্ঠানই বন্ধ। পরীক্ষা সরকারের অনুমতিসাপেক্ষেই নেওয়া হচ্ছে।’

সারাদেশের ২২২টি পরীক্ষাকেন্দ্রে অভিন্ন প্রশ্নপত্রে দাওরায়ে হাদিস পরীক্ষা চলছে। সকাল ৯টা থেকে এবং বেলা ৩টা পর্যন্ত শিক্ষার্থীরা এ পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছেন।

advertisement