advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

৫ম শ্রেণির শিক্ষার্থীকে তুলে নিয়ে গণধর্ষণ

বরিশাল ব্যুরো ও বিয়ানীবাজার প্রতিনিধি
৮ এপ্রিল ২০২১ ০০:০০ | আপডেট: ৭ এপ্রিল ২০২১ ২২:৫৯
advertisement

সিলেটের বিয়ানীবাজারে পঞ্চম শ্রেণির এক শিক্ষার্থীকে (১২) বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে দুই যুবকের বিরুদ্ধে। এলাকাবাসী তাদের আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে। গতকাল বুধবার তাদের জেলহাজতে পাঠান আদালত। তারা হলো- বাহাদুরপুর দক্ষিণ ঠিকরপাড়া গ্রামের মৃত ছাইদ আলীর ছেলে ফয়ছল আহমদ পেটলা ও উত্তর গাংপার এলাকার মৃত আবদুর খালিকের ছেলে মিশুক আহমদ।

এদিকে বরিশালের বাকেরগঞ্জে অর্থ সাহায্যের কথা বলে এক কিশোরীকে একাধিকবার ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে (চৌকিদার) আবুল কালাম আজাদ নামে এক গ্রামপুলিশের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় মঙ্গলবার বিকালে পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে। আবুল কালাম উপজেলার গারুড়িয়া ইউনিয়নের বা-ারকাঠি গ্রামের মো. মজিদ মোল্লার ছেলে। এর আগে নির্যাতিত ওই কিশোরীর মা সোমবার বাকেরগঞ্জ থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা করেন।

বিয়ানীবাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হিল্লোল রায় বলেন, শিশু ধর্ষণে অভিযুক্ত দুজনকে আটক করে

গতকাল আদালতে হাজির করা হয়। পরে তাদের জেলহাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন আদালত।

জানা যায়, মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে ঘর থেকে নলকূপে পানি নিতে বের হলে ওই শিশুকে তুলে নিয়ে পাশের একটি নির্জন জায়গায় দুই বখাটে ধর্ষণ করে অজ্ঞান অবস্থায় রেখে পালিয়ে যায়। এ সময় ঘরের লোকজন খোঁজাখোঁজি করে তাকে ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করেন। ঘটনা জানাজানি হলে স্থানীয়রা ধর্ষকদের আটক করে রাখেন। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তাদের থানা নিয়ে আসে। গতকাল বুধবার তাদের বিরুদ্ধে বিয়ানীবাজার থানায় মামলা দায়ের করেন শিশুটির বাবা।

অন্যদিকে বরিশালের বাকেরগঞ্জের গ্রামপুলিশ আবুল কালাম অর্থ সহায়তা দেওয়ার কথা বলে গত রবিবারও ওই কিশোরীকে ধর্ষণ করে। পরে বিষয়টি ওই কিশোরী তার মাকে জানায়। এর পর সোমবার কিশোরীর মা বাকেরগঞ্জ থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা করেন। মঙ্গলবার ধর্ষক কালামের বিচারের দাবিতে গারুড়িয়া বাজারে মানববন্ধন করেন এলাকাবাসী।

বাকেরগঞ্জ থানার ওসি আলাউদ্দিন মিলন জানান, ধর্ষক আবুল কালাম আজাদকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ধর্ষণের শিকার ওই কিশোরীকে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য শের-ই বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

advertisement