advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

বৈশাখী আয়োজন

অসিত কর্মকার
৯ এপ্রিল ২০২১ ০০:০০ | আপডেট: ৮ এপ্রিল ২০২১ ২১:৩৩
advertisement

আসছে পহেলা বৈশাখ বাঙালির বর্ষবরণ উৎসব। করোনা মহামারীর কারণে উৎসবের রঙ খানিকটা ফিকে হয়ে গেলেও পরিবার-পরিজন নিয়ে

ঘরেই আয়োজন করতে পারেন উৎসবের

খাবার। বৈশাখী আয়োজনের রেসিপি

দিয়েছেন অসিত কর্মকার

ভর্তার থালা

সরিষা ভর্তা- উপকরণ : সরিষা ২ টেবিল চামচ, পেঁয়াজ ২ টেবিল চামচ, রসুন ২ কোয়া, কাঁচামরিচ ২টি ও লবণ স্বাদমতো।

প্রণালি : সব উপকরণ একসঙ্গে শিলপাটায় মিহি করে বেটে নিন।

কালিজিরা ভর্তা- উপকরণ : কালিজিরা ২ টেবিল চামচ, রসুনের কোয়া এক টেবিল চামচ, পেঁয়াজ কুচি আধা টেবিল চামচ, লবণ স্বাদ অনুযায়ী ও সরিষার তেল এক চা-চামচ।

প্রণালি : একটি পাত্রে তেল গরম করে সব উপকরণ একসঙ্গে দিয়ে ভালো করে টেলে নিন। কালিজিরা টালা হলে শিলপাটায় মিহি করে বেটে নিন। সাজিয়ে পরিবেশন করুন।

টমেটো ভর্তা- উপকরণ : পাকা টমেটো ২৫০ গ্রাম, পেঁয়াজ কুচি আধা কাপ, ধনেপাতা কুচি এক টেবিল চা-চামচ, কাঁচামরিচ কুচি এক চা-চামচ, লবণ স্বাদ অনুযায়ী এবং সরিষার তেল ও পানি পরিমাণমতো।

প্রণালি : টমেটো ভালো করে ধুয়ে সামান্য লবণ ও পরিমাণমতো পানি দিয়ে সিদ্ধ করে নিন। পেঁয়াজ ধনেপাতা ও কাঁচামরিচ, স্বাদ অনুযায়ী লবণ এবং পরিমাণমতো সরিষার তেল হাত দিয়ে ভালো করে চটকিয়ে নিন। এতে সিদ্ধ টমেটো দিয়ে ভালো করে চটকিয়ে নিন।

পটোলের খোসা ভর্তা- উপকরণ : পটোলের খোসা এক কাপ, পেঁয়াজ কুচি আধা কাপ, রসুন কুচি এক চা-চামচ, ধনেপাতা কুচি এক টেবিল চামচ ও লবণ স্বাদমতো।

প্রণালি : পটোলের খোসা সিদ্ধ করে বাকি সব উপকরণ দিয়ে শিলপাটায় ভালোভাবে বেটে নিন।

ফাইস্যা শুঁটকি ভর্তা- উপকরণ : শুঁটকি ৬টি, পেঁয়াজ কুচি আধা কাপ, রসুন কুচি ২ টেবিল চামচ, শুকনা মরিচ ৬টি ও লবণ স্বাদ অনুযায়ী।

প্রণালি : শুঁটকি হালকা গরম পানিতে কিছুক্ষণ রেখে ধুয়ে নিন। এবার শিলপাটায় ভালো করে ছেঁচে সব উপকরণ দিয়ে ভালোভাবে বেটে নিন।

ভাপা ইলিশ

উপকরণ : ইলিশ মাছ ৮ পিস, সরিষা বাটা ৫ টেবিল চামচ, টক দই আধা কাপ, সরিষার তেল ৪ টেবিল চামচ, হলুদ গুঁড়া এক চামচ, শুকনা মরিচ গুঁড়া এক চামচ, নারিকেল বাটা ৪ টেবিল চামচ, লবণ স্বাদমতো ও পানি অল্প পরিমাণ।

প্রণালি : সব উপকরণ ভালোভাবে মেখে নিয়ে একটি স্টিলের টিফিন বক্সের মধ্যে নিয়ে ঢেকে দিন। এবার একটি কড়াইয়ে অর্ধেক পানি দিন। ফুটে উঠলে বাটিটা দিয়ে বড় ঢাকনা দিন। ১০-১৫ মিনিট পর নামিয়ে সরিষার তেল ছড়িয়ে পরিবেশন করুন।

রসগোল্লা

উপকরণ : ছানার জন্য তরল দুধ এক লিটার ও ভিনিগার ৩ টেবিল-চামচ এবং সিরার জন্য চিনি এক কাপ, পানি ৪ কাপ ও এলাচ ২টি। এ ছাড়া ময়দা আধা টেবিল চামচ ও বেকিং সোডা এক চিমটি।

প্রণালি : প্রথমে পাত্রে তরল দুধ দিয়ে চুলায় বসিয়ে দিন। বলক এলে ভিনিগার দিয়ে চুলা বন্ধ করে দিন। ছানা জমাটবাঁধলে পানি দিয়ে ভালো করে ধুয়ে পাতলা কাপড়ে ছেঁকে ভালোভাবে পানি ঝরিয়ে নিন। একটি পাত্রে ছানা, ময়দা, চিনি ও বেকিং সোডা ভালোভাবে ১৫ থেকে ২০ মিনিট ময়ান দিয়ে ছোট ছোট বল বানিয়ে রাখুন। অন্য পাত্রে চিনি ও পানি চুলায় বসিয়ে বলক উঠলে ছানার গোল্লা দিয়ে চুলার আঁচ বাড়িয়ে রাখুন পাঁচ মিনিট। এর পর চুলার আঁচ মাঝারি করে ২০ থেকে ২৫ মিনিট জ্বাল দিন। চুলা থেকে নামানোর পর ঠা-া করে পরিবেশন করুন মজাদার রসগোল্লা।

খিচুড়ি

উপকরণ : পোলাওয়ের চাল ২ কাপ, মুগ ডাল ভাজা এক কাপ, হলুদ গুঁড়া এক চা-চামচ, সরিষার তেল আধা কাপ, পেঁয়াজ কুচি আধা কাপ, এলাচ ও দারুচিনি ৪-৫ টুকরা, আদা বাটা এক চা-চামচ, জিরা বাটা এক চা-চামচ এবং লবণ ও গরম পানি পরিমাণমতো।

প্রণালি : চাল ও ডাল আলাদাভাবে ধুয়ে পানি ঝরিয়ে নিন। ফ্রাইপ্যানে তেল দিয়ে দারুচিনি, এলাচ ও তেজপাতা ফোড়ন দিয়ে বাকি সব মসলা দিয়ে কষিয়ে চাল ও ডাল দিতে হবে। চাল ও ডাল ভাজা ভাজা হয়ে এলে গরম পানি দিয়ে ঢেকে দিতে হবে। পানি শুকিয়ে এলে নামিয়ে দমে রাখুন। ১০-১৫ মিনিট পর খিচুড়ি পরিবেশন করুন।

advertisement