বিচার কার্যক্রম নিয়ন্ত্রিত হওয়ায় ধর্ষণ মহামারী : সেলিমা

১২ জুলাই ২০১৯ ১৪:২৪
আপডেট: ১২ জুলাই ২০১৯ ১৫:১৩

বিচার কার্যক্রম প্রধানমন্ত্রী ও আইনমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে নিয়ন্ত্রিত হচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য বেগম সেলিমা রহমান। বিচার ব্যবস্থা ধ্বংসের পথে বলে ধর্ষণ মহামারীতে পরিণত হয়েছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

আজ শুক্রবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে বাংলাদেশ ছাত্র মিশন আয়োজিত সংগঠনটির কেন্দ্রীয় কাউন্সিলে স্থায়ী কমিটির এই সদস্য এসব কথা বলেন।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের এক বক্তব্যের সমালোচনা করে সেলিমা রহমান বলেন, ‘আপনারা বিচার ব্যবস্থাকে সম্পূর্ণ ধ্বংস করে দিয়েছেন। সেই কারণে ধর্ষণ আজকে মহামারী আকারে পরিণত হয়েছে। কারণ কোনো বিচার নাই, কোনো বিচার ব্যবস্থা নাই। আজকে সম্পূর্ণ বিচার কার্যক্রম প্রধানমন্ত্রী ও আইনমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে নিয়ন্ত্রিত হচ্ছে। ফলে কোনো বিচারক নিরপেক্ষভাবে রায় দিতে পারছেন না।’

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর প্রকাশিত কেন্দ্র-ভিত্তিক ফলাফলে অস্বাভাবিক ভোট পড়ার চিত্র উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘দেখানো হয়েছে, প্রায় সব ভোট কেন্দ্রে ৮০ ও ১০০ শতাংশ ভোট পড়েছে। এটা একটা অবিশ্বাস্যকর ঘটনা।’

বেগম সেলিমা বলেন, ‘আমাকে এখানে একটা কাগজ দিয়ে গেছে। সেখানে বলা আছে, দেশের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পরিচালনা করা হয় না। এটা করা হয় গণভবন থেকে। অর্থাৎ শিক্ষার মানকে একেবারে ধ্বংস করে দিয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘আজকে ছাত্র সমাজকে অন্যদিকে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। কারণ একটি জাতিকে ধ্বংস করতে হলে আগে শিক্ষাকে ধ্বংস করতে হবে। তাই শিক্ষা ব্যবস্থাকে ধ্বংস করে দিয়ে ২০ থেকে ২৫ বছরের ছেলেদের “ছাত্র সমাজ” টেন্ডারবাজি, সন্ত্রাসী ও দুর্নীতির পিছনে লাগিয়ে দেওয়া হয়েছে।’

খালেদা জিয়াকে বিনা চিকিৎসায় মেরে ফেলার চেষ্টা হচ্ছে বলেও অভিযোগ করেন সেলিমা রহমান।

এর আগে সৈয়দ মো. মিলনকে সভাপতি এবং শফিকুল ইসলামকে সাধারণ সম্পাদক করে ছাত্র মিশনের নতুন কমিটি (২০১৯-২১) ঘোষণা করেন মোস্তাফিজুর রহমান ইরান।

আয়োজক সংগঠনের আহ্বায়ক সৈয়দ মো. মিলনের সভাপতিত্বে বাংলাদেশ লেবার পার্টির চেয়ারম্যান ডা. মোস্তাফিজুর রহমান ইরান প্রমুখ বক্তব্যে রাখেন।