বলাৎকার চেষ্টার ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়ানোর হুমকি, লজ্জায় আত্মহত্যা!

শ্রীপুর (গাজীপুর) প্রতিনিধি
২০ আগস্ট ২০১৯ ১৫:৩০ | আপডেট: ২০ আগস্ট ২০১৯ ১৬:১৮

গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলায় জামাল উদ্দিন (৪৫) নামের এক ব্যক্তি আত্মহত্যা করেছেন। গতকাল সোমবার উপজেলার তেলিহাটি টেপিরবাড়ী এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহতের পরিবারের দাবি, জামালের কাছে চাঁদা চেয়ে না পেয়ে তাকে বলাৎকার চেষ্টা করেন কয়েকজন দুর্বৃত্ত। পরে সেই ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়ানোর হুমকি দিলে লজ্জায় তিনি আত্মহত্যা করেন।

নিহতের ছেলে রাকিবুল হাসান হৃদয় জানান, কিছুদিন ধরে জামাল উদ্দিনের কাছে স্থানীয় চাঁন মিয়ার ছেলে সিয়াম, রইছ উদ্দিনের ছেলে সাদেক মিয়া, তাদের সহযোগী রনি, পিন্টু, সজল ও শাওনসহ কয়েকজন যুবক ২০ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করে আসছিলেন। ওই টাকা না দেওয়ায় গত রোববার বিকেলে তারা জামাল উদ্দিনকে বাড়ি থেকে ডেকে পাশের বৃন্দাবন-বাদশাহ নগর এলাকার জঙ্গলে নিয়ে যান।

সেখানে ওই যুবকরা তাকে বলাৎকারের চেষ্টা করেন এবং সেই ঘটনার ভিডিও ধারণ করেন। পরে সেই ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দিয়ে সোমবারের মধ্যে দুই লাখ টাকা চাঁদা দিতে বলেন। বাড়ি ফিরে জামাল উদ্দিন স্বজনদের কাছে বিষয়টি জানান। নিরাপত্তার কথা ভেবে জামাল উদ্দিন সোমবার সকালে বাড়ির লোকজনকে তার শ্বশুরবাড়ি পাঠিয়ে দেন।

এদিকে চাঁদা দিতে না পেরে এবং দুর্বৃত্তদের ভিডিও ছড়ানোর হুমকির পরিপ্রেক্ষিতে লোকলজ্জার ভয়ে জামাল উদ্দিন ঘরের বারান্দার আড়ার সঙ্গে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন। দুপুরে প্রতিবেশীরা জামাল উদ্দিনের ঝুলন্ত লাশ দেখতে পেয়ে পুলিশে খবর দেন। পরে ঘটনাস্থল থেকে জামালের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য গাজীপুরের শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজের মর্গে পাঠায় পুলিশ।

শ্রীপুর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. নয়ন ভূঁইয়া জানান, জামাল উদ্দিন রোববারের ওই ঘটনা স্বজন ও এলাকার লোকদের জানিয়েছিলেন। স্থানীয়রাও তাকে থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করার পরামর্শ দিয়েছিলেন। কিন্তু তার আগেই তিনি আত্মহত্যা করেন। এ ঘটনায় আত্মহত্যায় প্ররোচণার অভিযোগে থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে। ঘটনার পর থেকে অভিযুক্তরা পলাতক রয়েছেন।