পুলিশের চাকরি পেয়েই মেয়ের মৃত্যু, বাইরে অপেক্ষায় বাবা

অনলাইন ডেস্ক
১৭ জানুয়ারি ২০২০ ০০:৪১ | আপডেট: ১৭ জানুয়ারি ২০২০ ০০:৪১
ছবি : সংগৃহীত

বাবার ইচ্ছা ছিল মেয়ে পুলিশের চাকরি করবে। তার ইচ্ছা পূরণ করতেই পুলিশের চাকরির জন্য শারীরিক পরীক্ষা দিতে এসেছিলেন মেয়ে। তবে পুলিশের উর্দি আর পরা হয়নি ভারতের বাগপতের ফজলপুরের তরুণী অংশিকার।

শেষ পর্যন্ত পুলিশের চাকরিটা পেলেও সেই খবর শোনার আগেই মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন এই তরুণী।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জি নিউজের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, পুলিশের চাকরির জন্য জন্য গত কয়েক বছর ধরে প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন অংশিকা। ওই দিন পুলিশের চাকরির জন্য শারীরীক পরীক্ষা দিতে সময় মতো হাজির হয়েছিলেন তিনি। পরীক্ষার অংশ হিসেবে ১৪ মিনিটে ২.৪ কিমি দৌঁড় শেষ করে চূড়ান্তভাবে নির্বাচিত হন ওই তরুণী। কিন্তু দৌঁড় শেষ করার কিছু পরই মাঠেই জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন অংশিকা। এরপর আর তার জ্ঞান ফেরানো সম্ভব হয়নি। এ সময় তার বাবা বাইরে অপেক্ষা করছিলেন।

অংশিকার জ্ঞান না ফিরলে সঙ্গে সঙ্গে তাকে গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে যান পুলিশ সদস্যরা। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। পরে তার পরিবারের বাকি সদস্যদের খবর দিয়ে লাশ হস্তান্তর করে পুলিশ।