তৃতীয় বিয়ে করতে গিয়ে পিটুনি খেয়ে হাসপাতালে বর

অনলাইন ডেস্ক
১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ১৫:০৪ | আপডেট: ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ১৫:০৯
প্রতীকী ছবি

অনুমতি ছাড়াই তৃতীয় বিয়ে করতে গিয়ে প্রথম স্ত্রীর পরিবারের লোকজনের মারধরের শিকার হয়েছেন বর। পরে আহত অবস্থায় তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সম্প্রতি পাকিস্তানের সিন্ধু প্রদেশের রাজধানী করাচির নর্থ নাজিমাবাদ এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

জিও টিভির বরাত দিয়ে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, পিটুনি খাওয়ার পর বর হামলাকারীদের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন। অনুমতি ছাড়া বিয়ের আসরে ঢুকে পড়া ও বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির অভিযোগে এই মামলা করেন তিনি।

পুলিশ বলছে, উভয়পক্ষকে আদালতে আইনি ব্যবস্থা নিতে পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। তবে আটকে রাখার মতো কোনো কারণ নেই তাদের কাছে।

পুলিশ আরও বলছে, বর হামলায় আহত হয়েছেন। তিনি হামলাকারীদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নিতে চান। তাকে প্রাথমিক চিকিৎসার জন্য আব্বাসী শাহেদ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

বর বলেন, ‘ওই নারী আমার প্রথম স্ত্রী। তার সঙ্গে কিছুদিন আগে আমার সম্পর্ক শেষ হয়ে গেছে। আমি প্রথম পক্ষের স্ত্রীকে আইনি নোটিশ পাঠিয়েছি। আমার আইনজীবী তাদের সঙ্গে কথা বলবেন।’

প্রথম স্ত্রীর অভিযোগ, তার স্বামী গোপনে ২০১৮ সালে দ্বিতীয় বিয়ে করেছিলেন। একইভাবে তৃতীয় বিয়ে করার চেষ্টার সময় তিনি ধরা পড়েন।

পাকিস্তানে ১৯৬১ সালের মুসলিম পারিবারিক আইন অধ্যাদেশ অনুসারে দ্বিতীয় বিয়ে করার আগে প্রথম স্ত্রীর কাছ থেকে লিখিত অনুমতি নিতে হয়।