করোনার বিরুদ্ধে ঘরে ঘরে দূর্গ গড়ে তুলুন : ওবায়দুল কাদের

নিজস্ব প্রতিবেদক
২৬ মার্চ ২০২০ ১৫:৩৪ | আপডেট: ২৬ মার্চ ২০২০ ১৬:০৪
পুরোনো ছবি

বিশ্বে মহামারি আকারে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) থাবা বসিয়েছে বাংলাদেশেও। মরণব্যাধী এই ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব রোধে নাগরিকদের ঘরে ঘরে দূর্গ গড়ে তোলার আহ্বান জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

আজ বৃহস্পতিবার রাজধানীর বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ আহ্বান জানান কাদের। সংবাদ সম্মেলনে দেশবাসীকে মহান স্বাধীনতা দিবসের শুভেচ্ছাও জানান তিনি। করোনা সংকটের কারণে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদকের এই সংবাদ সম্মেলন শুধুমাত্র বাংলাদেশ টেলিভিশনের ক্যামেরায় ধারণ করা হয়েছে।

সংবাদ সম্মেলন ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘বাঙালি বীরের জাতি, নানা দুর্যোগ-সংকটে বাঙালি জাতি সম্মিলিতভাবে সেগুলো মোকাবিলা করেছে। ১৯৭১ সালে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে আমরা শত্রুর মোকাবেলা করে বিজয়ী হয়েছি। করোনাভাইরাস মোকাবিলাও একটা যুদ্ধ। এ যুদ্ধে আপনাকে প্রধানতম দায়িত্ব ঘরে থাকা। আমরা সকলের প্রচেষ্টায় এ যুদ্ধে জয়ী হবো ইনশাআল্লাহ। ঘরে বসেই সচেতনতার মাধ্যমে করোনার বিরুদ্ধে ঘরে ঘরে দূর্গ গড়ে তুলুন।’

সংবাদ সম্মেলনে জাতির উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া ভাষণের প্রশংসাও করেন আওয়ামী লীগ সম্পাদক। তিনি বলেন, ‘করোনাভাইরাসের কারণে সৃষ্ট এই সংকটময় মুহূর্তে প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা জাতির উদ্দেশে দেওয়া ভাষণে মিথ্যার ফানুস ওড়াননি। তিনি অবাস্তব ও কল্পনাপ্রসূত প্রতিশ্রুতি দেননি। বাস্তবতার নিরিখে স্বাভাবিক জীবনের দরজায় কড়া নাড়া অনাকাঙ্ক্ষিত করোনাভাইরাসে সৃষ্ট সংকট মোকাবেলার রূপরেখা ও কর্মপরিকল্পনা তুলে ধরেছেন প্রধানমন্ত্রী।’

কতিপয় মহল প্রধানমন্ত্রীর ভাষণের সমালোচনা করছে উল্লেখ করে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা দেখতে পাচ্ছি, কতিপয় মহল বা কিছু ব্যক্তি সংকট ও সম্ভবনার কথা বিশ্লেষণ না করে বরাবরের মতো ছিদ্রান্বেষণী হয়ে প্রধানমন্ত্রীর ভাষণের সমালোচনা করেছেন। অনাকাঙ্ক্ষিত সংকট নিরসনে সচেতনতা সৃষ্টির মাধ্যমে যেখানে জাতীয় ঐক্য প্রয়োজন সেখানেও তারা বিভেদের রাজনীতি করতে চায়।’

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রশংসা করে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী জাতির অভিভাবক। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্য উত্তরসূরি হিসেবে বরাবরের মতো এ দেশের মানুষের প্রতি সহানুভূতিপ্রবণ ও সংবেদনশীল হয়ে প্রধানমন্ত্রী তার ভাষণ প্রদান করেছেন। দেশের জনগণের একজন হয়েই জনগণের পাশে দাঁড়িয়েছেন। আশা করি, দেশের জনগণের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় আমরা এই সংকট মোকাবেলা করতে সক্ষম হবো, ইনশাআল্লাহ।’