বাবা বলছেন 'সস্ত্রীক করোনায় আক্রান্ত, কাজী মারুফ বলছেন 'না'

বিনোদন ডেস্ক
২৯ মার্চ ২০২০ ০১:২৭ | আপডেট: ২৯ মার্চ ২০২০ ০১:৪৬
কাজী মারুফ ও তার বাবা কাজী হায়াত

স্ত্রীসহ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ঢাকাই সিনেমার এক সময়ের জনপ্রিয় চিত্রনায়ক কাজী মারুফ। বাবা কাজী হায়াত গণমাধ্যমে এ কথা নিশ্চিত করলেও মারুফ জানিয়েছেন তিনি ভালো আছেন, আর তার স্ত্রীর করোনাভাইরাস হয়নি।

গতকাল শনিবার মারুফ তার স্ত্রীসহ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন এমন খবর পেয়ে যোগযোগ করা হয় তার বাবার সঙ্গে। প্রখ্যাত নির্মাতা কাজী হায়াত দৈনিক আমাদের সময় অনলাইনকে নিশ্চিত করেন তার ছেলে এবং তার স্ত্রীর করোনা আক্রান্তের কথা। বলেন, ‘কাজী মারুফ ও তার স্ত্রী করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। গতকাল পরীক্ষায় তাদের দুজনের শরীরে ভাইরাস শনাক্ত হয়। এখন তারা নিউইয়র্কের বাসায় আইসোলেশনে আছে। তবে তাদের দুটি সন্তান সুস্থ আছে।’

কাজী হায়াত আরও বলেন, ‘সেখানে ওর মামা আছে। আমাদেরও যাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু এই করোনা পরিস্থিতির কারণে যাওয়া হয়নি। আপনারা সবাই ওদের জন্য দোয়া করবেন।’

এদিকে স্ত্রীর জ্বর হলেও নিজে সুস্থ আছেন বলে জানান প্রথম সিনেমা দিয়েই জাতীয় চলচ্চিত্র পুরষ্কার অর্জন করা কাজী মারুফ। বলেন, ‘আমি ভালো আছি। আর আমার স্ত্রীও করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়নি।’

নিউইয়র্কে বৃষ্টি হচ্ছে, তাই মারুফের স্ত্রী রাইসার জ্বর হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রে বর্তমানে করোনা রোগীর ষংখ্যা বেশি। তাই এমন খবর ছড়িয়েছে বলে মন্তব্য করেন ঢাকাই সিনেমার এই নায়ক। তিনি জানান, তার স্ত্রী ভীত হয়ে তার মাকে জ্বরের কথা জানায়। এ কথা জানতে পেরে তার বাবাও উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েন।

মারুফ আরও জানান, তার স্ত্রী জ্বরের কারণে সবার নিরাপত্তার কথা ভেবে আইসোলেশনে আছেন। তিনি জ্বরে আক্রান্ত হলেও মারুফ সুস্থ আছেন।

বাবা কাজী হায়তের নির্মানে ইতিহাস ছবি দিয়ে বাংলাদেশের চলচ্চিত্রে নাম লেখান মারুফ। পরপর অভিনায় করেন ‘অন্ধকার’, ‘রাস্তার ছেলে’, ‘বস্তির ছেলে কোটিপতি’, ‘দারোয়ানের ছেলে’, ‘দেহরক্ষী’, ‘ইভটিজিং’, ‘সর্বনাশা ইয়াবা’সহ বেশ কিছু জনপ্রিয় সিনেমায়।