করোনা চিকিৎসায় ভিটামিন সি কার্যকর কি না

অনলাইন ডেস্ক
৩০ মার্চ ২০২০ ১১:৪১ | আপডেট: ৩০ মার্চ ২০২০ ১১:৪১
ফাইল ছবি

যুক্তরাষ্ট্রের চিকিৎসা গবেষণা সেন্টার ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব হেলথের (এনআইএইচ) বৈজ্ঞানিক তথ্য অনুযায়ী, ভিটামিন সি ওষুধের পরিপূরক হিসেবে ক্যানসার, হৃদরোগ, বয়সজনিত বিভিন্ন রোগের জন্য এবং সাধারণ সর্দি-কাশিতে ব্যবহার করার পরামর্শ দেওয়া হয়।
চীন ও যুক্তরাষ্ট্রের হাসপাতালগুলোও করোনাভাইরাস সংক্রমিত রোগীদের চিকিৎসায় পরিপূরক হিসেবে ভিটামিন সি ব্যবহার করা হচ্ছে।
জানা গেছে, চীনের করোনা সংক্রমিত রোগীদের প্রথমে হারবাল চা এবং এরপর তাদের ঐতিহ্যবাহী চাইনিজ ওষুধ ব্যবহার করা হচ্ছে। আর দ্রুত ও কার্যকর চিকিৎসায় এতে অনেক বেশি মাত্রায় ভিটামিন সি দেওয়া হচ্ছে।
যদিও বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ভিটামিন সি করোনার চিকিৎসায় কার্যকারী ভূমিকা রাখে এর কোনো প্রমাণ এখনও পাওয়া যায়নি। এ নিয়ে আরও গবেষণা করতে হবে।
যদিও জ্বর, সর্দির মতো উপসর্গে রোগীদের ভিটামিন সি খেতে বলা হয়। তবে এটি ইনফ্লুয়েঞ্জার মতো রোগের ক্ষেত্রে কতটা কাজ করে তা এখনও বিবেচিত হয়নি।
এদিকে, যুক্তরাষ্ট্রের ম্যাগাজিন নিউজউইকের বরাত দিয়ে সাউথ চায়না মর্নিং পোস্টের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, নিউইয়র্কের হাসপাতালগুলোতে করোনা আক্রান্ত রোগীদের প্রতিদিন স্বাভাবিকের চেয়ে বেশি মাত্রায় ইনজেকশনের মাধ্যমে ভিটামিন সি দেওয়া হচ্ছে। ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব হেলথের (এনআইএইচ) পরামর্শ অনুযায়ী, পুরুষদের ৯০ মিলিগ্রাম এবং নারীদের ৭৫ মিলিগ্রাম ভিটামিন সি দেওয়া হচ্ছে।
চীনের উহান ইউনিয়ন হাসপাতাল এই ধরনের ব্যবস্থা নিয়েছিল বলে নিশ্চিত করেছেন হাসপাতালটির চিকিৎসক অধ্যাপক লিউ শি।
তার ভাষ্য, ‘ভিটামিন সি কাজ করে কি-না তা আমরা নিশ্চিত না। এখনও এই বিষয়ে অনেক গবেষণা দরকার।’
একই মত পোষণ করে বেইজিং তংগ্রেন হাসপাতালের চিকিৎসক অধ্যাপক ইয়াং জুংকিন বলেন, ‘করোনার চিকিৎসায় এখনও পর্যন্ত নির্দিষ্ট কোনো ওষুধ তৈরি হয়নি। সান্ত্বনা হিসেবে ভিটামিন সি রোগীদের ওষুধের তালিকায় রাখা হচ্ছে। এটি রোগীদের চিকিৎসায় ব্যবহার করা সমর্থনের জন্য কোনো বৈজ্ঞানিক ভিত্তি নেই আর এটি রোগ সারাতে কার্যকর, এমন পরামর্শও সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন।’