করোনায় ঝুঁকি নিয়ে যারা কাজ করছেন তাদের প্রণোদনা দেওয়ার ঘোষণা

নিজস্ব প্রতিবেদক
৭ এপ্রিল ২০২০ ১১:০২ | আপডেট: ৭ এপ্রিল ২০২০ ১১:৪৫
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। পুরোনো ছবি

মহামারি করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে সারা দেশে যারা ঝুঁকি নিয়ে কাজ করছেন তাদের প্রণোদনা দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আজ মঙ্গলবার সকালে প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে তিনি এ ঘোষণা দেন।

এর আগে সকাল ১০টায় দেশের করোনাভাইরাস পরিস্থিতি নিয়ে চট্টগ্রাম এবং সিলেট বিভাগের ১৫টি জেলার প্রশাসনিক কর্মকর্তা এবং জনপ্রতিনিধিদের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সে যোগ দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘সরকারি চিকিৎসক, নার্স স্বাস্থ্যকর্মী যারা করোনা চিকিৎসায় অবদান রেখেছেন। তাদের সকলকে আমি আন্তরিক ধন্যবাদ জানাচ্ছি। কারণ আমি দেখেছি সরকারি হাসপাতালগুলো যারা কাজ করে তারাই এগিয়ে এসেছে। তারা কোনো গাফিলতি করেনি। তারা নিজেদের ঝুঁকি জেনেও কাজ করেছে।’

‘এই ধরনের সাহসী স্বাস্থ্যকর্মী তাদেরকে উৎসাহ দেওয়াও আমাদের প্রয়োজন’ জানিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, ‘তাদেরকে বিশেষ একটা সম্মানিও দিতে চাই। সেজন্য ইতিমধ্যে আমি তালিকা করার নির্দেশ দিয়েছি। এই তালিকাটা প্রস্তুতের কাজ ইতিমধ্যে শুরু হয়ে গেছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘কোভিড-১৯ প্রতিরোধে চিকিৎসক, নার্স, স্বাস্থ্যকর্মী, মাঠ প্রশাসনের কর্মকর্তা, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্য, সশস্ত্র বাহিনীর সদস্য এবং প্রত্যক্ষভাবে নিয়োজিত প্রজাতন্ত্রের অন্যান্য কর্মচারীগণের জন্য আমরা একটা বিশেষ ইনসুরেন্সের ব্যবস্থা করে দেবো। সেটা আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি। ইতিমধ্যে অর্থ সচিবের সঙ্গে কথা হয়েছে।’

‘সেইসঙ্গে দায়িত্ব পালনকালে কেউ যদি কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হন, তবে তার চিকিৎসার জন্য সমস্ত ব্যবস্থা সরকার নেবে এবং তাদের জন্য স্বাস্থ্য বীমার ব্যবস্থা করে দেব। তাদের পদমার্যাদা অনুযায়ী ৫ থেকে ১০ লাখ টাকার স্বাস্থ্য বীমা‘ যোগ করেন আওয়ামী লীগ সভাপতি।

প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, ‘ইতিমধ্যে যারা মৃত্যুবরণ করেছেন, বা মৃত্যুর ঝুঁকি আছে বা কেউ যদি খোদা না করুন মৃত্যুবরণ করেন তাহলে তাদের জন্য এই বীমাটা আমরা পাঁচ গুণ বৃদ্ধি করে দেব। মনে রাখতে হবে এটা তাদের জন্যই করবো যারা এই করোনাভাইরাস শুরু হওয়ার পর থেকে যারা কাজ করেছেন। এই মার্চ মাসে যারা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে কাজ করেছেন এই প্রণোদনা শুধু তাদের জন্য।’

‘আর যারা কাজ করেননি, যারা নিজেদের সুরক্ষা করার জন্য পালিয়ে আছে, যেখানে রোগীরা দ্বারে দ্বারে ঘুরে চিকিৎসা পায়নি, সাধারণ রোগীরাও চিকিৎসা পায়নি- তাদের জন্য এই প্রণোদনা নয়। তারা এটা পাবেন না’ বলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।