খরচ ও মেয়াদ বাড়লেও শেষ হয়নি কাজ

ইন্দ্র সরকার মোহনগঞ্জ
২৩ মে ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ২২ মে ২০২০ ২৩:৪৩

নেত্রকোনার মোহনগঞ্জ উপজেলার শিয়ালজানি খালের সৌন্দর্যবর্ধন প্রকল্পটি ৫ বছরেও শেষ হয়নি। এ নিয়ে জনমনে ক্ষোভ দেখা দিয়েছে।

পৌর শহরের বুক চিরে শিয়ালজানি খাল দখলমুক্ত ও সৌন্দর্যবর্ধন প্রকল্পের কাজ ২০১৬ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে শুরু হয়। এখনো খালটির দুপাড়ের তিন কিলোমিটার ব্লক (স্কাব) বাঁধাই, আলোকসজ্জা, আরসিসি ড্রেন, রেলিং ও টাইলস্ সৌন্দর্যবর্ধনের কাজ শেষ হয়নি। স্থানীয়রা বলছেন, সাধারণত একটি প্রকল্পে যত ধরনের সমস্যা দেখা যায়, সব সমস্যাই এ প্রকল্পে রয়েছে। এর মধ্যে আছে খরচ ও প্রকল্পের মেয়াদ বৃদ্ধি, প্রকল্প পরিকল্পনায় ভুল ও বাস্তবায়নে দুর্বলতা ইত্যাদি। এরই মধ্যে প্রকল্পটির খরচ বাড়ানো হয়েছে তিনবার, আর মেয়াদ বাড়ানো হয়েছে দুবার। ১৮ কোটি টাকার প্রকল্পের খরচ এখন ২৯ কোটি টাকায় দাঁড়িয়েছে। নেত্রকোনা পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাউবো) পুরনো প্রকল্প এটি। এটি যৌথভাবে বাস্তবায়ন করছে পাউবো ও মোহনগঞ্জ পৌরসভা। এ অবস্থায় চলতি বছরেও প্রকল্পটি শেষ করা সম্ভব হবে না বলে প্রকল্প সূত্রে জানা গেছে।

প্রকল্পটির মূল ব্যয় ধরা হয়েছিল ১৮ কোটি ৩২ লাখ টাকা এবং শেষ করার কথা ছিল ২০১৮ সালের ফেব্রুয়ারি মাসের মধ্যে। পরে ২০১৯ এবং ২০২০ সালে মেয়াদ দুদফা বৃদ্ধি করা হয়। খরচও বৃদ্ধি করা হয় ওই দুই সালে। খরচ ও মেয়াদ বৃদ্ধির প্রধান কারণ হলো ওই প্রকল্পে ড্রেন ও মাইলোড়া স্লুইস গেট ছিল না, পরে তা সংযোজন করা হয়। সময়মতো প্রকল্প বাস্তবায়ন না করায় খরচ ও মেয়াদ বেড়েছে বলে সংশ্লিষ্টরা জানান। গত ৫ বছর ৩ মাসে প্রকল্পের ৬০ শতাংশ কাজ শেষ হয়েছে। এখনো সড়ক বাতি, রেলিং, খালের তলদেশের মাটি সরানো, কচুরিপানা অপসারণ, ফুটপাতে টাইলস ও ব্রিজের সংযোগ সড়ক নির্মাণের কাজ শেষ হয়নি।

জানতে চাইলে কাউন্সিলর কামাল হোসেন রতন বলেন, এ প্রকল্পটি ৫ বছরেও শেষ না করার কোনো যুক্তি থাকতে পারে না। প্রকল্প বাস্তবায়নের অদক্ষতা ও অনীহার জন্য শুধু পৌরসভা নয়; পানি উন্নয়ন বোর্ডও দায় এড়াতে পারে না।