২ হাজার দরিদ্র পরিবারকে খাদ্যসামগ্রী দিয়েছে মায়া ফাউন্ডেশন

নিজস্ব প্রতিবেদক
২৩ মে ২০২০ ২১:৫৭ | আপডেট: ২৩ মে ২০২০ ২১:৫৭
দরিদ্রদের সহায়তা করছেন রাশেদুল হোসেন চৌধুরী রনি

এবারের ঈদে শপিং না করে গরীব অসহায় ও কর্মহীনদের মাঝে অর্থ বিতরণ করতে সকলের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন মায়া ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান, এফবিসিসিআই পরিচালক এবং বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের শিল্প ও বাণিজ্য বিষয়ক উপকমিটির সদস্য রাশেদুল হোসেন চৌধুরী রনি।

গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে রনি বলেন, ‘বিত্তবানদের ঈদের শপিং না করে এর অর্থ অসহায়, দরিদ্র ও কর্মহীন জনগণের মাঝে বন্টনের আহ্বান জানাচ্ছি।’

‘মানুষের কল্যাণে আমরা’ স্লোগানকে ধারণ করে সাবেক দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বীরবিক্রমের নামে প্রতিষ্ঠিত’ মায়া ফাউন্ডেশন’ করোনাভাইরাসের দুর্যোগকালীন সময়ের প্রথম থেকেই খাদ্য সহায়তা কার্যক্রম চালিয়ে আসছে। ইতোমধ্যে ২ হাজার দরিদ্র পরিবারের মাঝে খাদ্যসামগ্রী তুলে দিয়েছে মায়া ফাউন্ডেশন।

বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসের সময় সামাজিক দায়বদ্ধতার অংশ হিসেবে মায়া ফাউন্ডেশনের ‘মানুষের কল্যাণে আমরা’ কর্মসূচির অধীনে তৃতীয় ধাপে এ কার্যক্রম শুরু করেছে সংগঠনটি। এবার রাজধানীর বনানী, গুলশান, উত্তরা ও মিরপুরের ৮০০ পরিবারে সহায়তার পাশাপাশি চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলার কলাকান্দা ও ফতেপুর পূর্ব ইউনিয়নের ১হাজার অসহায়, দরিদ্র, কর্মহীন হতদরিদ্র পরিবারকে প্রধানমন্ত্রীর উপহার পাঠিয়েছে সংগঠনটি।

এর আগে ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের ত্রাণ তহবিলে ২০০ জনের খাদ্য সামগ্রী পাঠিয়েছিল মায়া ফাউন্ডেশন। এসব ভোগ্যপণ্যের মধ্যে রয়েছে- চাল, ডাল, লবণ, তেল ও সাবান।

মায়া ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান রাশেদুল হোসেন চৌধুরী রনি বলেন, ‘সামাজিক দায়বদ্ধতার অংশ হিসেবে আমরা মানুষের কল্যাণে আমরা কর্মসূচি হাতে নিয়েছি। এর আওতায় দেশজুড়ে সাধারণ ছুটিতে কর্মহীন হয়ে পড়া প্রায় ২ হাজার অসহায় ও দরিদ্র পরিবারকে খাদ্য সহায়তা প্রদান করেছি।’