দিনে মাত্র দুজনের নমুনা সংগ্রহ, ২ দিন ধরে তাও বন্ধ

পাথরঘাটা প্রতিনিধি
২ জুলাই ২০২০ ১২:২০ | আপডেট: ২ জুলাই ২০২০ ১৩:৫৬
ছবি : আমাদের সময়

বরগুনার পাথরঘাটা উপজেলায় দুই লাখ মানুষের বসবাস। দেশের করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে এ উপজেলা থেকে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অধীনে প্রতিদিন দুজনের নমুনা সংগ্রহ করার কথা থাকলেও গত দুদিন ধরে তা বন্ধ রয়েছে। এ নিয়ে চরম উৎকণ্ঠায় রয়েছে করোনা উপসর্গ নিয়ে আগত রোগীরা।

পাথরঘাটা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে খোঁজ নিয়ে জানা যায়, বেসরকারি এনজিও পি এইচ বি এর অর্থায়নে পাথরঘাটা থেকে নমুনা সংগ্রহ করে একটি গাড়ি জেলা সদর হাসপাতালে পৌঁছে দিতো। তাদের প্রজেক্ট ৩০ জুন শেষ হওয়ার কারণে নমুনা পরিবহন বন্ধ রেখেছে তারা।

তবে ভুক্তভোগীদের অভিযোগ, পাথরঘাটা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্মকর্তার অব্যবস্থাপনার কারণেই তাদের ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছে।

জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্রে জানা যায়, বরিশালে পরীক্ষা ল্যাবে অতিরিক্ত চাপ থাকায় নমুনা কমিয়ে পাঠাতে বলা হয়েছে। সে কারণে বরগুনা থেকেও কম নমুনা সংগ্রহ করে পাঠানো হয়।

করোনা উপসর্গ নিয়ে নমুনা দিতে আসা সাংবাদিক জসিম জানান, ‘গত পাঁচদিন পূর্বে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এসে সিরিয়াল দিয়ে যাই। আজকে তাদের দেওয়া তারিখ মতো এসে জানতে পারি দুদিন ধরে পাথরঘাটা থেকে কোনো নমুনা যাচ্ছে না। পরে বিভিন্ন মাধ্যমে অনেক রিকোয়েস্ট করে নমুনা সংগ্রহ করে নিজ খরচে জেলা হাসপাতালে পাঠানোর চুক্তিতে নমুনা দিয়েছি।’

এ বিষয়ে পাথরঘাটা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্মকর্তা ডা. আবুল ফাত্তাহ বলেন, ‘পরিবহন সংকটের কারণে নমুনা সংগ্রহ করেও তা বরগুনার হাসপাতালে পাঠাতে পারছি না।’

তবে সিভিল সার্জন ডা. হুমায়ূন খাঁ সাহিন দৈনিক আমাদের সময়কে জানান, ‘পাথরঘাটা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের বিষয়টি আমি অবহিত হয়েছি। স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের প্রধানকে নমুনা সংগ্রহ করে মোটরসাইকেল যোগে বরগুনায় পাঠানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।’

জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের তত্ত্বাবধায়ক সালামাতুল্লাহ খান জানান, এ পর্যন্ত পাথরঘাটা থেকে ২৮০টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। এর মধ্যে ২৬টি পজিটিভ রিপোর্ট এসেছে। তাদের মধ্যে ১৪ জন সুস্থ হয়ে বাড়িতে অবস্থান করছে।