চেলসির বড় জয়

ক্রীড়া ডেস্ক
৬ জুলাই ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ৬ জুলাই ২০২০ ০০:৩৬

ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডকে পেছনে ফেলে ফের ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে পয়েন্ট তালিকার চতুর্থ অবস্থান পুনরুদ্ধার করেছে চেলসি। শনিবার তারা ওয়াটফোর্ডকে ৩-০ গোলে হারিয়ে আগের অবস্থানে ফিরে আসে।

এর আগে অনুষ্ঠিত লিগ ম্যাচে ধুঁকতে থাকা বোর্নমাউথকে ৫-২ গোলে হারিয়ে তালিকার চতুর্থ স্থান দখল করেছিল ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। তালিকার তৃতীয় অবস্থানে থাকা লিস্টার সিটিও নিজেদের অবস্থান সংহত রেখেছে ক্রিস্টাল প্যালেসকে হারিয়ে। শীর্ষ আসরে গোলের সেঞ্চুরি করেছেন জেমি ভার্ডি। এদিন আর্সেনাল ২-০ গোলে হারিয়েছে উলভসকে।

নিজেদের মাঠে দুর্দান্ত দক্ষতা দেখিয়েছে ইউনাইটেড। দলের চার আগ্রাসী ফুটবলার জালের দেখা পেয়েছে শনিবারের ম্যাচে। নিজেদের মাঠে অনুষ্ঠিত লিগ ম্যাচে ম্যাসন গ্রিনউডের জোড়া গোল ছাড়াও লক্ষ্য ভেদ করেছেন মার্কাস রাসফোর্ড, অ্যান্থনি মার্টিয়াল ও ব্রুনো ফার্নান্দেস। ফলে ২০১১ সালের পর প্রিমিয়া লিগে এই প্রথম ৫ গোলের দেখা পেয়েছে রেড ডেভিলসরা।

দলীয় কোচ ওলে গুনার সুলশায়ার বলেন, ‘আমাদের আত্মবিশ^াস আকাশ সমান। এ রকম পারফরম্যান্স আপনাকে শক্তি ও আত্মবিশ^াস জোগাবে। আমরাও আজ তাই পেয়েছি। দলের বিগত কয়েকটি ম্যাচই আমরা দারুণ উপভোগ করছি। তাবে এগুলোর মধ্যে এটি ছিল বেশি আকর্ষণীয়।’ এ নিয়ে টানা ১৬ ম্যাচে অপরাজিত রয়েছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড।

শুরুতে অবশ্য গোল খেয়ে পিছিয়ে পড়েছিল ইউনাইটেড। স্টানিসলাসের গোলে ১৬ মিনিটে ০-১ ব্যবধানে পিছিয়ে পড়ে স্বাগতিক দল। এতে তারা এতেটাই তেতে উঠেছিল যে এর শোধ নিয়েছে নিষ্ঠুরভাবে। ২৯ মিনিটে গোলটি পরিশোধ করে ইউনাইটেডকে সমতায় ফিরিয়ে দেন গ্রিনউড (১-১)। ৬ মিনিট পর পেনাল্টি থেকে গোল করে ইউনাইটেডকে এগিয়ে দেন রাসফোর্ড (২-১)। বিরতিতে যাওয়ার মুহূর্তে ৪৫ মিনিটে মার্টিয়ালের গোলে নিরাপদ দূরত্ব নিয়ে বিশ্রামে যায় সুলশারের শিষ্যরা। বিরতি থেকে ফিরে ৪৯ মিনিটে পেনাল্টি থেকে কিংয়ের গোলে ফের জমে যায় ম্যাচ। ফলে সফরকারী দলটি ব্যবধান কমিয়ে ৩-২ গোলে চলে আসে। অবশ্য ৫ মিনিট পরই গ্রিনউডের দ্বিতীয় গোল স্বস্তি ফিরে আসে স্বাগতিক শিবিরে। তার ৫৪ মিনিটের গোলে ব্যবধান বাড়ে ৪-২। ৫৯ মিনিটে ফার্নান্দেস গোল করলে ৫-২ গোলের জয় নিশ্চিত হয় ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের।

ওই জয়ে ৫৫ পয়েন্ট নিয়ে কিছু সময়ের জন্য চেলসিকে টপকে পয়েন্ট তালিকার চতুর্থ স্থানে উঠে গিয়েছিল ইউনাইটেড। তবে এর পর চেলসি তাদের ম্যাচে রেলিগেশনের হুমকিতে থাকা ওয়াটফোর্ডকে হারিয়ে পয়েন্ট তালিকায় নিজেদের অবস্থান পুনর্দখল করে।

ম্যাচের শুরু থেকে বল দখলে এগিয়ে থাকা স্বাগতিক চেলসিকে ২৮ মিনিটে এগিয়ে দেন অলিভার গিরুদ। ৪৩তম মিনিটে স্পট কিকে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন উইলিয়ান। ডি-বক্সের ভেতর ক্রিস্টিয়ান পুলিসিচ ফাউলের শিকার হওয়ায় পেনাল্টি পেয়েছিল চেলসি। লিগে এ নিয়ে টানা তিন ম্যাচে পেনাল্টি থেকে গোল পেলেন ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডার উইলিয়ান।

বিরতির পর ৬৭তম মিনিটে অল্পের জন্য ম্যাচে নিজের দ্বিতীয় গোল পাননি উইলিয়ান। তবে ইনজুরি সময়ে স্কোরলাইন ৩-০ করেন বার্কলে। ডি-বক্সের ভেতর বাঁ দিক থেকে সিজারের বাড়ানো বলে জোরালো শটে লক্ষ্য ভেদ করেন তিনি।