ভাতা পাবেন অসচ্ছল ক্রীড়াবিদরা

ক্রীড়া প্রতিবেদক
১০ জুলাই ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ৯ জুলাই ২০২০ ২৩:০৫

যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মো. জাহিদ আহসান রাসেলের উদ্যোগে দেশের অসচ্ছল ক্রীড়াবিদদের নানাভাবে সহযোগিতার কার্যক্রম চলছে। তারই ধারাবাহিকতায় ২০১৯-২০ অর্থবছরে বঙ্গবন্ধু ক্রীড়াসেবী কল্যাণ ফাউন্ডেশন থেকে ১ হাজার ১৫০ জন অসচ্ছল ক্রীড়াবিদকে মাসিক ভাতা প্রদানের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। অসচ্ছল ক্রীড়াবিদদের প্রত্যেককে মাসিক ২ হাজার টাকা হারে বছরে ২৪ হাজার টাকা দেওয়া হবে।

জাতীয় ক্রীড়া পরিষদে এক বৈঠকের পর যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে এ সিদ্ধান্তের কথা জানানো হয়। সভা শেষে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল জানিয়েছেন, দ্রুতই অসচ্ছল ক্রীড়াবিদদের হাতে অর্থ তুলে দেবেন তারা। তিনি বলেন, ‘স্বাধীনতার পরেই অসচ্ছল ক্রীড়াবিদ ও ক্রীড়া সংগঠকদের কল্যাণার্থে এ ফাউন্ডেশনটি গড়ে তুলেছিলেন সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। জাতির পিতার স্মৃতিবিজড়িত এ ফাউন্ডেশন সব সময় ক্রীড়াবিদদের পাশে রয়েছে।’ তিনি আরও বলেন, ‘আমরা করোনা ভাইরাস মহামারী চলাকালে ৫০ জন অসচ্ছল খেলোয়াড় বা ক্রীড়াসেবীকে ১০ হাজার টাকা হারে মোট পাঁচ লাখ টাকা দিয়েছি। ইতোমধ্যে করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত এক হাজার ক্রীড়াবিদকে এক কোটি টাকা অনুদান দিয়েছি। এবার ২০১৯-২০২০ অর্থবছরে বঙ্গবন্ধু ক্রীড়াসেবী কল্যাণ ফাউন্ডেশন হতে এক হাজার ১৫০ জন অসচ্ছল ক্রীড়াবিদের প্রত্যেককে বা তাদের পরিবারকে মাসিক ভাতা হিসেবে দুই হাজার টাকা হারে বছরে ২৪ হাজার টাকা অচিরেই প্রদান করা হবে।’ ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রীর উদ্যোগে এর আগে করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত ১ হাজার ক্রীড়াবিদকে এক কোটি টাকা প্রদান করা হয়েছে এবং দেশব্যাপী অসহায় ক্রীড়াবিদদের সহায়তা দিতে জাতীয় ক্রীড়া পরিষদকে ৩ কোটি টাকা বরাদ্দ দিয়েছে অর্থ মন্ত্রণালয়। বরাদ্দ পাওয়ার পরই জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ এ অর্থ প্রকৃত অসহায়দের মধ্যে কীভাবে বিতরণ করা হবে, তার কার্যক্রমও শুরু করে।