ম্যান সিটির বড় জয়

ক্রীড়া ডেস্ক
১০ জুলাই ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ৯ জুলাই ২০২০ ২৩:০৫

প্রথমার্ধে দুই গোল করে ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ নেওয়া ম্যানচেস্টার সিটি দ্বিতীয়ার্ধে করল আরও দুটি। সঙ্গে প্রতিপক্ষের একটি আত্মঘাতী গোল। নিউক্যাসল ইউনাইটেডকে উড়িয়ে জয়ে ফিরল পেপ গার্দিওলার দল। নিজেদের মাঠ ইতিহাদ স্টেডিয়ামে বুধবার ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের ম্যাচটি ৫-০ গোলে জিতেছে সিটি। একটি করে গোল করেন গাব্রিয়েল জেসুস, রিয়াদ মাহরেজ, ডেভিড সিলভা ও রহিম স্টার্লিং। লিগের প্রথম পর্বে এই দলের মাঠে ২-২ ড্র করেছিল গত দুবারের চ্যাম্পিয়নরা।

লিভারপুলের একচ্ছত্র আধিপত্যের সামনে লিগ শিরোপা আগেই খুইয়েছে ম্যানচেস্টার সিটি। চলতি মৌসুমেও লিগ চ্যাম্পিয়ন হলে শিরোপার হ্যাটট্রিক হয়ে যেত পেপ গার্দিওলার শিষ্যদের। কিন্তু অলরেডদের দাপটের সঙ্গে নিজেদের ব্যর্থতায় সেই সুযোগ হারিয়েছে সিটিজেনরা। তবে শিরোপা হাতছাড়া হলেও ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের ইতিহাসে অনন্য এক রেকর্ড গড়েছেন সার্জিও অ্যাগুয়েরো, গ্যাব্রিয়েল জেসুসরা। ইংল্যান্ডের বর্তমান শীর্ষ পর্যায়ের লিগে একমাত্র দল হিসেবে এক মৌসুমে পাঁচ খেলোয়াড় করেছেন ১০ বার তার বেশি গোল।

বুধবার রাতে নিউক্যাসল ইউনাইটেডের বিপক্ষে ম্যান সিটির ৫-০ গোলের জয়ে দ্বিতীয় গোলটি করেন রিয়াদ মাহরেজ, যা চলতি লিগে তার গোল সংখ্যাকে নিয়ে দুই অঙ্কে। এবারের লিগে ম্যান সিটির পঞ্চম খেলোয়াড় হিসেবে দুই অঙ্কে গেলেন মাহরেজ। তার আগেই ২০১৯-২০ মৌসুমের লিগে ১০ বা তার বেশি গোল করে ফেলেছেন ক্লাব সতীর্থ কেভিন ডি ব্রুইন, গ্যাব্রিয়েল জেসুস, রহিম স্টার্লিং ও সার্জিও অ্যাগুয়েরো। সবচেয়ে বেশি ১৬ গোল অ্যাগুয়েরোর। এ ছাড়া স্টারলিং ১৩ এবং ডি ব্রুইন ও জেসুস করেছেন ১০টি করে গোল। ১৯৯২ সালে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ প্রবর্তনের পর থেকে গত ২৮ বছরে কোনো দলের পাঁচ খেলোয়াড় একই মৌসুমে ১০ গোল করতে পারেননি, যা করে দেখাল ম্যান সিটি। তবে ১৯৮৪-৮৫ মৌসুমের ফার্স্ট ডিভিশন ফুটবলে (তখন এটিই ছিল শীর্ষ লিগ) এভারটনের পাঁচ খেলোয়াড় করেছিলেন ১০ বা তার বেশি গোল।

এদিকে পাঁচ তারকার ১০ গোলের রেকর্ডের দারুণ এক মাইলফলকে পৌঁছেছেন ম্যান সিটির স্প্যানিশ মিডফিল্ডার ডেভিড সিলভা। বুধবার রাতের ম্যাচে জোড়া অ্যাসিস্টের মাধ্যমে চলতি লিগে তার মোট অ্যাসিস্ট ১০টি। এ নিয়ে টানা ১০ প্রিমিয়ার লিগে অন্তত ১০টি অ্যাসিস্টের রেকর্ড গড়লেন তিনি।