ফরিদপুর জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান হারলেন করোনার কাছে

ফরিদপুর প্রতিনিধি
১১ জুলাই ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ১০ জুলাই ২০২০ ২৩:৪৫

করোনায় আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেলেন ফরিদপুর জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি মুক্তিযোদ্ধা লোকমান হোসেন মৃধা (ইন্না নিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। শুক্রবার বেলা ১১টার দিকে ঢাকার শেখ রাসেল গ্যাস্ট্রোলিভার হাসপাতালে

তিনি মারা যান। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭৬ বছর। তিনি স্ত্রী, চার পুত্র, দুই কন্যাসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। তার মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা।

লোকমান হোসেন মৃধা গত ২৩ জুন করোনার উপসর্গ নিয়ে ফরিদপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হন। পরে নমুনা পরীক্ষায় তার রিপোর্ট করোনা পজিটিভ আসে। এর পর থেকে তিনি ফরিদপুরের করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। পরে অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকায় নিয়ে যাওয়া হয়। এর পর থেকেই তিনি শেখ রাসেল গ্যাস্ট্রোলিভার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন।

লোকমান হোসেন মৃধার মৃত্যুতে ফরিদপুর শহরজুড়ে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। তার মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন ফরিদপুর-৩ (সদর) আসনের এমপি ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ফরিদপুর-২ আসনের এমপি, সংসদ উপনেতা সৈয়দা সাজেদা চৌধুরী, ফরিদপুর-১ আসনের এমপি মঞ্জুরুল ইসলাম, বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির ভাইস চেয়ারম্যান, সাবেকমন্ত্রী চৌধুরী কামাল ইবনে ইউসুফ, জেলা প্রশাসক অতুল সরকার, পুলিশ সুপার মো. আলিমুজ্জামান, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সুবল চন্দ্র সাহা, সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মাসুদ হোসেন, সাবেক এমপিশাহ মোহাম্মদ আবু জাফর, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুর রাজ্জাক মোল্লা, ফরিদপুর পৌরসভার মেয়র শেখ মাহতাব আলী মেথু, জেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি জহিরুল হক শাহজাদা মিয়া।