ফুটবলারদের সঙ্গে বাফুফের আলোচনা

ক্রীড়া প্রতিবেদক
১১ জুলাই ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ১১ জুলাই ২০২০ ০০:১০

করোনা ভাইরাসের কারণে দেশের সব ধরনের খেলাধুলা বন্ধ রয়েছে। আবারও মাঠে খেলা ফেরাতে ফেডারেশনগুলোর সঙ্গে আলাপ-আলোচনা করছে ক্রীড়া মন্ত্রণলায়। এরই মধ্যে ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল এমপি বলেছেন, ঘরোয়া খেলাধুলা মাঠে ফেরানোর ব্যাপারে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের দিকে তাকিয়ে আছেন। এ পরিস্থিতির মধ্যে পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে খেলাধুলা শুরু হয়েছে। তবে বাংলাদেশে কবে খেলা মাঠে ফিরবে তা এখনো অজানা। তবে ফুটবলারদের মাঠে ফেরানোর জন্য উদ্যোগ নিচ্ছে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে)। এরই মধ্যে ফিফা ও এএফসির স্বাস্থ্যবিধির আলোকে নতুন স্বাস্থ্যবিধিও প্রস্তুত করা হয়েছে। কীভাবে অনুশীলন ও খেলায় ফিরবেন খেলোয়াড়রা, সেখানে এ ব্যাপারে নির্দেশনা রয়েছে। বাংলাদেশের সামনে আগামী অক্টোবরে বিশ্বকাপ ও এএফসি কাপের বাছাইপর্বের খেলা রয়েছে। এ জন্য ক্যাম্প গড়তে হবে। অনুশীলনে ফেরাতে হবে ফুটবলারদের। তবে কবে শুরু হবে তা এখনো অনিশ্চিত। ঘরোয়া ফুটবলও কবে শুরু হবে তা বলতে পারছে না খোদ বাফুফে। তবে ফুটবলারদের সঙ্গে আগে কয়েক দফায় আলোচনায় বসেছিলেন বাফুফের সভাপতি কাজী মো. সালাউদ্দিন। বর্তমান পরিস্থিতির মধ্যে কীভাবে ফিটনেস ধরে রাখতে হবে, সে ব্যাপারে তাদের পরামর্শ দিয়েছেন তিনি। আবার খেলাধুলা ফিরবে, এ জন্য প্রস্তুতি নিয়ে রাখতে বলেন খেলোয়াড়দের। ফুটবলাররাও নিজেদের ফিট রাখার জন্য সংগ্রাম চালিয়ে যাচ্ছেন। প্রধান কোচ জেমি ডের সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রাখছেন তারা। স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলছেন। তবে শুধু নিজেদের নিয়ে ভাবছেন না জাতীয় দলের ফুটবলাররা। অন্যান্য লিগে খেলা ফুটবলারদের কথাও চিন্তা করছেন তারা। খেলাধুলা বন্ধ হয়ে যাওয়ায় বেকার ফুটবলাররা। আয়-রোজগার বন্ধ হয়ে গেছে তাদের। এ অবস্থায় আর্থিক সহায়তা খুবই দরকার। প্রিমিয়ার লিগ পরিত্যক্ত ঘোষণা হয়েছে। এ লিগে খেলা ফুটবলারদের ক্লাবগুলোর কাছে পাওনা টাকার ব্যাপারে কোনো সুরাহা হয়নি। বেশি সমস্যায় আছেন অন্য লিগের খেলোয়াড়রা। অনেকের মানবেতর জীবন কাটানোর গল্প বের হচ্ছে প্রতিনিয়ত। এসব বিষয়ে বাফুফে সভাপতি সালাউদ্দিনের সঙ্গে আনুষ্ঠানিকভাবে আজ আলাপ-আলোচনা করবেন ফুটবলাররা। আজ বাফুফের টার্ফে ফুটবলারদের সঙ্গে কাজী সালাউদ্দিনের মতবিনময়সভার আয়োজন করা হয়েছে। বিকাল তিনটায় শুরু হবে এ মতবিনিময়সভা। সেখানে আনুষ্ঠানিকভাবে সমস্যাগুলো তুলে ধরবেন ফুটবলাররা। অন্তত ২০-৩০ জন ফুটবলার উপস্থিত থাকতে পারেন। কাজী সালাউদ্দিন ছাড়াও ন্যাশনাল টিমস কমিটির চেয়ারম্যান, বাফুফে সহ-সভাপতি কাজী নাবিল আহমেদ এবং আরেক সহ-সভাপতি ও ন্যাশনাল টিমস কমিটির ডেপুটি চেয়ারম্যান তাবিথ আউয়ালও থাকবেন। ফুটবলারদের সঙ্গে ক্লাবগুলোর যে আর্থিক ব্যাপার রয়েছে সেগুলোর ব্যাপারে আলোচনা করবেন তারা। এর আগে বলা হয়েছিল- ফুটবলার ও ক্লাবগুলোর স্বার্থ বিবেচনায় আর্থিক ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। ফুটবলাররাও আশা ব্যক্ত করে আগে বলেছেন, যাতে দুই পক্ষই লাভবান হয়, এ রকম একটি সিদ্ধান্ত চান তারা। কেননা করোনা ভাইরাসের কারণে সবাই বিপর্যয়ের মধ্যে পড়েছে। তাই উভয়ের স্বার্থই দেখতে হবে।