নিকলীতে জুয়ার আসর

নিকলী (কিশোরগঞ্জ) প্রতিনিধি
১৬ জুলাই ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ১৬ জুলাই ২০২০ ০০:২৫

নিকলীতে জুয়ার আসরে পুলিশের ধাওয়ায় পানিতে ডুবে টিটু নামে এক সুইপারের মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে। তিনি নেত্রকোনার আটপাড়া উপজেলার শুনুই গ্রামের আলতু মিয়ার ছেলে।

কটিয়াদি উপজেলার সুতি-নখলা গ্রামের বাসিন্দা ও টিটুর শ্বশুর গিয়াস উদ্দিন জানান, বৈবাহিক সূত্রে টিটু প্রায় ২০ বছর ধরে শ্বশুরবাড়িতে বসবাস করছিলেন। মঙ্গলবার দিন সকালে বাড়ি থেকে বের হওয়ার পর আর বাড়িতে ফিরেনি। লোকজনের মুখে অজ্ঞাতপরিচয় লাশ পাওয়ার সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলে এসে দেখেন, লাশটি তার জামাতা টিটুর। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, গত মঙ্গলবার বেলা ২টায় উপজেলার জারইতলার বুগলির

বিলসংলগ্ন পানিবেষ্টিত নির্জন ভিটায় এক দল লোক জুয়া খেলছিল। খবর পেয়ে নিকলী থানার এসআই মিজান (সিভিল পোশাকে) ১২ সদস্যের দল নিয়ে জুয়াড়িদের ধাওয়া করেন। এ সময় একজনকে আটক করা হয়। বাকিরা পানিতে ঝাঁপিয়ে পড়ে পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়। তবে টিটু ঝাঁপিয়ে পড়ে পানিতে ডুবে যায়। কিন্তু বিলের পানিতে ডুবে যাওয়ার বিষয়টি পুলিশ ও এলাকাবাসীর নজরে আসেনি। গতকাল সকাল ১০টায় বিলের পাশের ফিশারির লোকজন কাজ করতে গিয়ে টিটুর লাশ দেখতে পেয়ে জারইতলা ইউপি চেয়ারম্যান কামরুল ইসলাম মানিককে জানান। পরে নিকলী থানার অফিসার ইনর্চাজ শামসুল আলম সিদ্দিকী সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে যান এবং লাশ উদ্ধার করে নিকলী থানায় নিয়ে আসেন।

শামসুল আলম সিদ্দিকী জানান, এ ব্যাপারে নিকলী থানায় অপমৃত্যু মামলা হয়েছে। লাশের ময়নাতদন্তের পর প্রকৃত ঘটনা জানা যাবে।