শিশুর স্থুলতা : অভিভাবকদের করণীয়

ডা. নাজমুল ইসলাম
১২ আগস্ট ২০২০ ১৭:৪৮ | আপডেট: ১২ আগস্ট ২০২০ ১৭:৪৮

শরীরে অতিরিক্ত চর্বি জাতীয় পদার্থ জমা হওয়াকেই স্থুলতা বলে। শিশুদের স্থুলতা দিন দিন বেড়েই চলেছে। উন্নত বিশ্বে এটা আরও ভয়াবহ। স্থুলতা ও অতিরিক্ত ওজন এটা কিন্তু এক না। অতিরিক্ত ওজন হলো শরীরের উচ্চতা অনুযায়ী যদি ওজন বেশি হয়।শিশুদের স্থুলতা যদি নিয়ন্ত্রণ করা না যায় তবে এটা পরিণত বয়সেও স্থুলতায় রূপান্ত‌রিত হয়।

শিশুদের স্থুলতার কারণে কী কী সমস্যা হতে পারে?

  • ডায়াবেটিস (টাইপ ২)
  • শুয়ে থাকা অবস্থায় শ্বাসকষ্ট
  • হাপানী
  • গলায় কালো দাগ হয়ে যাওয়া
  • কাজে অনীহা
  • উচ্চ রক্তচাপ
  • হাড় ভেঙে যাওয়া
  • পিওথলিতে পাথর

স্থুলতার কারণ

  • অতিরিক্ত ফাস্টফুড খাওয়া
  • খেলাধুলা কম করা
  • কায়িক পরিশ্রম কম করা
  • মোবাইল ও কম্পিউটার এ অতিরিক্ত গেমস্ খেলা
  • হরমোন-থাইরয়েড হরমোন কম থাকলে
  • সময় মতো খাওয়া দাওয়া না করলে
  • পরিমিত ঘুম না হলে এবং সময় মতো না ঘুমালে

স্থুলতা বা অতিরিক্ত ওজন বোঝার উপায়

BMI ( Body mass index ) পরিমাপ করে আমরা স্থুলতা বা অতিরিক্ত ওজন হিসাব করতে পারি। BMI একজনের ওজনকে তার উচ্চতা দিয়ে ভাগ করে পরিমাপ করা হয়। অতিরিক্ত ওজন তখন বলবো যখন BMI 85th - 95th পার্সেন্টাইল এর মধ্যে থাকে। আর যদি BMI 95th পার্সেন্টাইলের বেশি বা সমান হয় তখন তাকে স্থুলতা বুঝায়।

করণীয়

১. খাদ্যাভ্যাস পরিবর্তন

  • শর্করা ও স্নেহ জাতীয় খাবার কম খাবে
  • ফাস্টফুড এড়িয়ে চলবে
  • শাকসবজি , ফলমূল, পানি বেশি খেতে হবে

২. কায়িক শ্রম বাড়াতে হবে

  • হেটে স্কুলে যেতে পারে
  • খেলাধুলা বেশি করে করবে
  • পারলে হালকা ব্যায়াম করবে

৩. অনেক সময় ধরে মোবাইল বা কম্পিউটার গেমস পরিহার করতে হবে।

৪. ঘুমের সময় নির্ধারণ করতে হবে। অসময়ে ঘুম বা কম ঘুমের কারণে স্থুলতা হয়। ৩-৫ বছরের বাচ্চাদের ১০-১৩ ঘণ্টা ঘুমের প্রয়োজন।

৫. খাবারের সময় বজায় রাখতে হবে। খাবার সময়মতো না খেলে ওজন বাড়তে পারে।

লেখক : ডা. নাজমুল ইসলাম, রেজিস্ট্রার, শিশু সার্জারি বিভাগ, ঢাকা শিশু হাসপাতাল।