যুক্তরাষ্ট্রে ১৬০ অভিবাসী গ্রেপ্তার, নেই কোনো বাংলাদেশি

কৌশলী ইমা,নিউ ইয়র্ক প্রতিনিধি
১১ সেপ্টেম্বর ২০২০ ১৯:৩৯ | আপডেট: ১১ সেপ্টেম্বর ২০২০ ১৯:৪৮

যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক ও নিউজার্সি থেকে ১৬০ জন অভিবাসীকে গ্রেপ্তার করেছে ইমিগ্রেশন অ্যান্ড কাস্টমস এনফোর্সমেন্ট (আইস)। নানা ধরনের অপরাধে জড়িত থাকার কারণে গত মঙ্গলবার নিউইয়র্কে ৮৩ ও নিউজার্সি থেকে ৭৭ জন অভিবাসীকে গ্রেপ্তার করা হয়। আইস-এর ওয়েবসাইটে তথ্য অনুযায়ী, তাদের মধ্যে কোনো বাংলাদেশি নেই।

আইস পরিচালক টনি ফ্যাম জানিয়েছেন, চলতি অভিযানে আগে গ্রেপ্তার হওয়া, দোষী সাব্যস্ত হওয়া বা ক্ষতিগ্রস্তদের সঙ্গে জড়িত থাকার অপরাধে অনিবন্ধিত অভিবাসীদের লক্ষ্য করা করেছে।

নিউইয়র্ক সিটি এবং নিউজার্সিতে যারা গ্রেপ্তার হয়েছে, তাদের কয়েকজনকে অতীতে শিশু নির্যাতন, হয়রানি, যৌন ও উত্তেজিত লাঞ্ছনা, দোষ-তদন্ত, অস্ত্র লঙ্ঘন, ডাকাতি, মাদকের অভিযোগ ও মাদকাসক্ত হয়ে গাড়ি চালানোর অভিযোগে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

টনি ফ্যাম বলেন, এসব অপরাধীরা পুরুষ। তাদের দ্বারা বিভিন্ন নারী এবং শিশুরা নানা ধরনের যৌন হয়রানির শিকার হয়েছে বলে অভিযোগ রয়েছে। এসব অপরাধীদের বিরুদ্ধে আমাদের প্রচেষ্টা অব্যাহত থাকবে।

উল্লেখ্য, গত শনিবার যুক্তরাষ্ট্রে অনুপ্রবেশের অভিযোগে এক নারীসহ ১০১ বাংলাদেশিকে ফেরত পাঠিয়েছে দেশটির সরকার। ওমনি এয়ারলাইন্সের একটি বিশেষ বিমানে দেশে ফেরত পাঠানো হয় ওই ১০১ বাংলাদেশিকে।

এসব বাংলাদেশিরা একেকজন ২৫ থেকে ৩০ লাখ টাকা খরচ করে বিভিন্ন দেশ হয়ে যুক্তরাষ্ট্রে গিয়েছিলেন। কিন্তু সেখানে অবৈধ অনুপ্রবেশের দায়ে আমেরিকার হোমল্যান্ড সিকিউরিটির হাতে গ্রেপ্তার হন তারা।

এরপর বিভিন্ন মেয়াদে ডিপোর্টেশন ক্যাম্পে থাকার পর গত ৫ সেপ্টেম্বর একটি বিশেষ বিমানে দেশে ফেরত পাঠানো হয়। এর আগেও বিভিন্ন সময় যুক্তরাষ্ট্র থেকে এভাবে কর্মীরা ফেরত গেছেন।