চিঠিপত্র

১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ ০০:০০
আপডেট: ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ ২২:০২

ওষুধের দাম বেড়েই চলেছে। বিক্রেতারা ইচ্ছামতো দাম বাড়িয়ে ওষুধ বিক্রি করছেন। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ইদানীং গুরুত্বপূর্ণ একটা বিষয় হচ্ছে, ওষুধের প্রতিটি পাতায় মূল্য লেখা বাধ্যতামূলক করা। ওষুধের পাতায় দাম উল্লেখ না থাকায় ওষুধ ব্যবসায়ী এবং ফার্মেসিগুলো ভুয়া ক্যালকুলেশন করে সাধারণ মানুষকে বিপদগ্রস্ত করছে। কিছু ওষুধের দোকান ওষুধের দাম বেশি রাখায় দ-প্রাপ্ত হলেও বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই আইনের চোখকে ফাঁকি দিয়ে প্রতারণা চলছেই। সাধারণত ট্যাবলেট বা ক্যাপসুলের পাতায় মূল্য মুদ্রিত থাকে না। ফলে দোকানদারদের মুখের কথার ওপর নির্ভর করেই সেগুলো ক্রেতাদের কিনতে হচ্ছে। প্রতিবার, প্রতিটি ক্ষেত্রে ওষুধের প্যাকেট দোকানদারের কাছ থেকে চেয়ে নেওয়ার পর মোট মূল্য দেখে সেটাকে ভাগ করে প্রতি পাতার মূল্য বের করে ওষুধ কেনা দুরূহ ব্যাপার। তা ছাড়া গ্রামের অর্ধশিক্ষিত, অশিক্ষিত মানুষ এতকিছু ঘেঁটে দেখেও না। এমনকি মফস্বল বা শহরের শিক্ষিতরা এ নিয়ে মাথা ঘামায় না। আর এই সুযোগে ওষুধের মূল্য নিয়ে প্রতারণা করছে একশ্রেণির বিক্রেতা। সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের প্রতি অনুরোধ এই যে, ওষুধের প্রতি স্ট্রিপ বা পাতায় মূল্য উল্লেখের বিষয়টি আমলে নিয়ে যথাযথ পদক্ষেপ নিন।

আল-আমিন আহমেদ

শিক্ষার্থী, মৌলভীবাজার সরকারি কলেজ

বিশ্ববিদ্যালয়ে কোর্সটি চালু করা হোক

আমাদের দেশের বিশ্ববিদ্যালয়ে বিভিন্ন বিষয়ে পড়ালেখা উচ্চ শিক্ষা দেওয়া হয়। উচ্চ শিক্ষার জন্য অনেকেই দেশের বাইরে যায়। এর মধ্যে অন্যতম মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র । কারণ ওই পৃথিবীতে একটি অন্যতম প্রধান গুরুত্বপূর্ণ দেশ হিসেবে বিবেচিত। যে কারণে পৃথিবীর অনেক দেশেই ‘অগঊজওঈঅঘ ঝঞটউওঊঝ’ ঝঁনলবপঃ-টি ইতোমধ্যে চালু হয়েছে।

তাই বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি, পারমাণবিক গবেষণাসহ অন্যান্য গবেষণা,ব্যবসা-বাণিজ্যসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে এক কথায় পৃথিবীর উন্নত দেশগুলোর সঙ্গে সমান তালে এগিয়ে যাওয়ার স্বার্থে সরকার, বিশ^বিদ্যালয়গুলোর কর্তৃপক্ষসহ সব সংশ্লিষ্ট মহল বাংলাদেশে ‘অগঊজওঈঅঘ ঝঞটউওঊঝ’ কোর্সটি চালু করার কথা সক্রিয়ভাবে বিবেচনা করলে আমরা অনেক উপকৃত হব। আশা করি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ বিষয়টি নজরে নিয়ে বাস্তবায়ন করবে। এমনটাই প্রত্যাশা আমার।

টিএমএইচ আলমগীর

বাগবাড়ী হাউস, ঈদগাহ লেন, সূত্রাপুর, বগুড়া