বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে বাবরের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ তরুণীর

স্পোর্টস ডেস্ক
২৯ নভেম্বর ২০২০ ১৪:৪৯ | আপডেট: ২৯ নভেম্বর ২০২০ ১৪:৪৯
পাকিস্তানের ক্রিকেট দলের অধিনায়ক বাবর আজম

পাকিস্তানের ক্রিকেট দলের অধিনায়ক বাবর আজমের বিরুদ্ধে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে ধর্ষণের অভিযোগ করেছেন এক তরুণী। যিনি নিজেকে বাবরের স্কুলের সময়ের বন্ধু বলে দাবি করেছেন। এ নিয়ে গতকাল শনিবার রীতিমতো সাংবাদিক বৈঠকও করেন ওই তরুণী। এর জেরেই প্রশ্নের মুখে পড়েছে পাক ক্রিকেটের উজ্বলতম তারকার ক্রিকেট ক্যারিয়ার।

সংবাদ প্রতিদিনের খবরে বলা হয়েছে, অধিনায়ক বাবর আজমের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্তা, শারীরিক নির্যাতন, বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে ধর্ষণসহ একের পর এক চাঞ্চল্যকর অভিযোগ করেছেন ওই তরুণী। পুলিশকে জানিয়ে কোনো উপকার না হওয়ায় বাবরের যাবতীয় ‘কেচ্ছা’ ফাঁস করতে সাংবাদিক বৈঠক করেন তিনি।

শনিবার ওই তরুণী দাবি করেন, বাবর বছরের পর বছর তাকে ব্যবহার করেছেন, নিজের যাবতীয় খরচের টাকা নিয়েছেন, বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে শারীরিক সম্পর্ক করেছেন। এমনকি বাবরের সঙ্গে শারীরিক সম্পর্কের পর অন্তঃসত্ত্বাও হয়েছিলেন বলে দাবি তার।

সেই ২০১০ সাল থেকে পাকিস্তানের তারকা ব্যাটসম্যানের সঙ্গে তার সম্পর্ক জানিয়ে ওই তরুণী বলেন, তখন বাবরের এত খাতি ছিল না। স্কুলে পড়াকালীনই বাবর তাকে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দেন। এমনকি তারা পালিয়ে বিয়ে করার সিদ্ধান্তও নেন। কিন্তু এরই মধ্যে জাতীয় দলে ডাক পেয়ে যান বাবর এবং খ্যাতির শিখরে পৌঁছতেই বেঁকে বসেন।

তাকে নাকি এই ঘটনা প্রকাশ্যে না আনার জন্য চাপ দেওয়া হতো, মারধর করা হতো। এমনকি খুনের হুমকিও দেওয়া হয়েছে বলে দাবি ওই তরুণীর।

অবশ্য এ বিষয়ে বাবর আজমের কোনো প্রতিক্রিয়া এখনো পাওয়া যায়নি। তিনি এই মুহূর্তে নিউজিল্যান্ডে পাক দলের বাকি সদস্যদের সঙ্গে কোয়ারেন্টিনে আছেন। ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিন শেষ হলেই কিউইদের বিরুদ্ধে টেস্ট ও টি-২০ খেলার কথা রয়েছে পাক দলের।