সাক্ষাৎকার

আমি এখন কোথায় যাব?

  জাহিদ ভূঁইয়া

০৭ ডিসেম্বর ২০১৭, ০০:০০ | আপডেট : ০৭ ডিসেম্বর ২০১৭, ০০:২৬ | প্রিন্ট সংস্করণ

শাকিব-অপুর তালাকের খবর নিয়ে আলোচনা এখন সবখানে। কেউ বলছেন অপুর প্রতি অন্যায় করেছেন শাকিব, কেউ আবার বলছেন শাকিব যেটা করেছেন ঠিকই আছে। যদিও এ বিষয়ে গণমাধ্যমে খুব বেশি কথা বলেননি শাকিব-অপু। অবশেষে গতকাল আমাদের সময়ের সঙ্গে বিভিন্ন বিষয়ে অনেক কথা বলেছেন অপু বিশ্বাস।

দীর্ঘ নয় বছর আলাদা বাসায় থেকেও আপনাদের সংসার ছিল! এখন সেটাও ভেঙে গেল। কারণ কী?

সত্যি বলতে কি, এখনো আমি বিশ্বাস করতে পারছি না। গত মাসে ছেলেকে রেখে চিকিৎসা নিতে কলকাতায় যাওয়ার কারণে শাকিবের সঙ্গে ছোটখাটো ভুল বোঝাবুঝি হয়। তবে কয়েক দিন পরই সেটা স্বাভাবিক হয়ে গিয়েছিল। তারপরও শাকিব এটা কেন করল, কার বুদ্ধিতে করলÑ কিছুই বুঝতে পারছি না। পরিবার, ধর্ম সব কিছু ছেড়ে আমি তাকে বিয়ে করেছিলাম। সে একবারও আমার কথা ভাবল না? আমি এখন কোথায় যাব?

গতকাল একটি গণমাধ্যমে বলেছেন, জোর করে আপনাকে ধর্মান্তরিত করা হয়েছিল। কিন্তু শাকিব তো আপনাকে ভালোবেসেই বিয়ে করেছিলেন। তা হলে এই প্রশ্ন কেন?

শুরু থেকেই শাকিব চেয়েছিল, বিয়ের বিষয়টা যেন প্রকাশ্যে না আনি। তার কথামতো আমি চুপ করে ছিলাম। যখন আমাদের প্রথম সন্তানের (আব্রাম খান জয়) জন্ম হলো, তখন তাকে বলি- বিষয়টা সবাইকে জানানোর সময় এসেছে। কিন্তু আমার কোনো কথাই সে কানে নেয়নি। পরে ছেলের জন্যই আমি সবার সামনে আসি। কারণ আব্রামের বাবা কে, সেটা সবার জানা দরকার ছিল। পরিশেষে এটা বলতে চাই, আমিও কিন্তু ভালোবেসেই শাকিবকে বিয়ে করেছিলাম। নিজের ধর্ম ছেড়ে অন্য ধর্ম গ্রহণ করেছিলাম। কিন্তু শাকিব তো সেই ভালোবাসার মূল্য দিল না।

শোনা যাচ্ছে, আপনি এখন বিভিন্ন নারীবাদী সংগঠনের সহায়তা চাচ্ছেন। তা হলে কি এটা ধরে নেওয়া যেতে পারে যে, আপনি নির্যাতনের শিকার?

আমাদের সমাজে তালাকপ্রাপ্ত মেয়েদের কতটা অবহেলা করা হয়, সেটা কমবেশি সবাই জানেন। তা ছাড়া আব্রামের ভবিষ্যৎ পুরোটা পড়ে রয়েছে। তার কথা চিন্তা করে হলেও আমাকে একটা সমাধানের পথ খুঁজতে হবে। সেক্ষেত্রে আমি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সহায়তা চাই। তিনি অত্যন্ত সহনশীল ও সুবিবেচনাপ্রসূত মনের মানুষ। তার সদয় হস্তক্ষেপই এই দুর্বিষহ অবস্থা থেকে আমাকে মুক্ত করতে পারে। এ ছাড়া আমার আর আব্রামের পাশে মানবাধিকার ও নারী সংগঠনগুলোকেও চাই।

শাকিব তার তালাক নোটিশে উল্লেখ করেছেন, কলকাতায় আপনি ‘বয়ফ্রেন্ড’ নিয়ে ঘুরতে গিয়েছিলেন আর শাকিবের কোনো নির্দেশই নাকি মেনে চলতেন না। কী বলবেন এ দুটি বিষয়ে?

তালাক নোটিশে শাকিব যেসব কারণ দেখিয়েছে, সেসব আমার কাছে সত্যিই বোধগম্য নয়। শাকিবের নির্দেশ যদি আমি নাই মানতাম, তা হলে এটা ভাবলাম কেন যেÑ আমি নামাজ, রোজা ও হজ আদায় করব। শাকিব ও আব্রামকে নিয়ে সুখে-শান্তিতে বাস করব। আর বয়ফ্রেন্ড বলে নায়ক বাপ্পীকে ঘিরে আমাকে নিয়ে যে মন্তব্য করা হচ্ছে, এটা শুনে আমি বিস্মিত হয়েছি। আমি চিকিৎসা করাতে কলকাতায় গিয়েছিলাম, কোনো বয়ফ্রেন্ডের সঙ্গে নয়। এটা কেন সাজানো হচ্ছে আমি জানি না। আর এটা না বললেই নয়, শাকিবের সবচেয়ে ভুল হলো, সে তার কাছের মানুষদের (গুটিকয়েক) কথায় চলে। আমি মনে করি, এজন্য খুব বড় বিপদে পড়তে হবে। কারণ দিনশেষে তারাই শাকিবের ভালো চায় না।

তালাক নোটিশে শাকিব এও বলেছেন, দেনমোহরের ৭ লাখ টাকা আপনাকে পরিশোধ করে দেবেন...

দেনমোহরের টাকা ৭ লাখ নয়, ১ কোটি ৭ লাখ। যদি তালাক হয়েই যায়, তা হলে আমাকে দেনমোহরের পুরো টাকাই শাকিবকে দিতে হবে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
  • নির্বাচিত

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে