‘আশিকি’রা এখন ‘জানু’

  জাহিদ ভূঁইয়া

১২ জানুয়ারি ২০১৭, ০০:০০ | আপডেট : ১২ জানুয়ারি ২০১৭, ০০:৩৭ | প্রিন্ট সংস্করণ

১৯৯০ সালের ১৭ আগস্ট মুক্তি পেয়েছিল বলিউডের জনপ্রিয় প্রেমের ছবি ‘আশিকি’। বক্স অফিসে ব্যাপক সাফল্য কুড়ানো এ ছবিতে জুটি বেঁধেছিলেন রাহুল রায় ও আনু আগারওয়াল। সে সময় ধারণা করা হয়েছিল, অনেক বছরই বলিউড মাতাবেন এ জুটি। কিন্তু এ এক ছবির পরই আনুকে আর সেভাবে পর্দায় দেখা যায়নি। ফলে এ জুটির রসায়নের আর দেখা পায়নি দর্শক। ২৩ বছর বিরতি দিয়ে এ ছবির সিক্যুয়াল হিসেবে ২০১৩ সালের ২৬ এপ্রিল মুক্তি পায় ‘আশিকি টু’। এতে জুটি বেঁধে অভিনয় করেন আদিত্য রায় কাপুর ও শ্রদ্ধা কাপুর। প্রথমটির মতো এটিও বক্স অফিসে ঝড় তোলে। তবে প্রথম জুটির মতো হারিয়ে যাননি তারা। ‘আশিকি টু’র সাফল্যের পর আদুরে শ্রদ্ধা ও রোমান্টিক হিরো আদিত্য আবার পর্দায় আসছেন আগামীকাল। ছবির নাম ‘ওকে জানু’। মানে, চার বছরে আশিকিরা বনে গেছেন জানু!

ছবির গল্পে দেখা যাবে, তারুণ্যের প্রতিনিধি অমিত ও ঋদ্বিমা। সেই সঙ্গে আধুনিক, স্বাধীনচেতা আবার একরোখাও। নিজেদের ভাবনার সঙ্গে মিল পেয়েই একসঙ্গে থাকার সিদ্ধান্ত নেয় তারা। তবে তা সংসারের আশায় কিংবা ভালবেসে আঁকড়ে ধরে থাকার সংকল্প নিয়ে নয়। যার যার ক্যারিয়ার গড়ার আগ পর্যন্ত একসঙ্গে থাকাতেই সীমাবদ্ধ। শুরু হয় অমিত আর ঋদ্বিমা লিভ ইন। মুহূর্ত, ণগুলো যতটা সম্ভব উপভোগ করেন তারা। একসঙ্গে আউটিং, খুনসুটি সব। এরই মধ্যে একটা গতি হয়ে যায় ঋদ্বিমার। প্যারিস যাওয়ার দিন এগিয়ে আসে। শুরু হয় সম্পর্কের নতুন মেরুকরণ, সামনে আসে মনোমালিন্য। ঠিক গলা ফাটিয়ে ঝগড়াঝাঁটি নয়। দুজন বুঝতে পারে, কোথাও যেন বেসুরে বেজে চলে বীণার তার। ঋদ্বিমার চলে যাওয়া নিশ্চিত হয়ে গেলে বদলে যেতে থাকে অমিত। নিজের ভেতর কী ঘটছে সেটা বুঝে উঠতে ব্যর্থ হয় ঋদ্বিমা নিজেও। প্রেম অথবা ক্যারিয়ারÑ চিরন্তন এই ঋদ্বিমার সামনে এসে দাঁড়াতে হয় তারুণ্যকে! শেষটা জানার অপোটা থেকেই যাচ্ছে। ছবিতে অমিতের ভূমিকায় আছেন আদিত্য রায় কাপুর। তার মতে, ‘লিভ-ইন রিলেশনশিপ অন্য সম্পর্কগুলোর চেয়ে খারাপ কিছু নয়। বরং একে অন্যকে সঠিকভাবে জানতে ও চিনতে এটা বেশ গুরুত্বপূর্ণ।’ ঋদ্বিমা চরিত্রে অভিনয় করেছেন শ্রদ্ধা কাপুর। চ্যালেঞ্জিং এক চরিত্রেই ছবিতে অভিনয় করেছেন বলে জানান তিনি।

গত বছরের মাঝামাঝি আদিত্য ও শ্রদ্ধার ব্রেকআপের খবর ছড়িয়েছিল বি-টাউনে। পরে অবশ্য শ্রদ্ধার সঙ্গে বিদেশে সময়ও কাটিয়েছেন আদিত্য। এ নিয়ে তিনি বলেন, ‘মিডিয়া সব সময় যেসব খবর পরিবেশন করে, এর পুরোটা সত্যি নাও হতে পারে। আর বিষয়টা যখন কোনো নিজস্ব সম্পর্কের, তখন তা সম্পর্কে খবর করতে গেলে আরও কাঠখড় পোড়ানোর আয়োজন করতে হবে। ব্যক্তিগত বিষয়টা এতটাই ব্যক্তিগত থাকে যে, সেখানে তৃতীয় ব্যক্তির অনুমানটা অনুমানই থেকে যায়।’

দণি ভারতীয় ছবি ‘ওকে কানামাছি’র আদলে নির্মিত হয়েছে ছবিটি। মূল ছবির পরিচালক প্রখ্যাত নির্মাতা মণি রত্নম। তারই খুব কাছের শিষ্য শাদ আলি নির্দেশনা দিয়েছেন ‘ওকে জানু’। গুরুত্বপূর্ণ একটি চরিত্রে অভিনয় করেছেন কিংবদন্তি অভিনেতা নাসিরউদ্দিন শাহ। সুরের জাদুকর এআর রাহমানের সংগীত পরিচালনায় ছবির গানগুলো এরই মধ্যে বেশ সাড়া ফেলেছে। ছবির সংলাপ লিখেছেন কিংবদন্তি গুলজার। আর প্রযোজনার দায়িত্ব কাঁধে নিয়েছেন করণ জোহর আর মণি রত্নম। এ সবকিছুর পরও সাফল্য-ব্যর্থতা নির্ভর করছে দর্শকপ্রিয়তার ওপর। এখন ভক্তদের চোখ, শেষ পর্যন্ত উতরে যেতে পারবেন তো আদিত্য-শ্রদ্ধা?

আজ এনটিভির সরাসরি গানের অনুষ্ঠান ‘মিউজিক এন রিদমে’ রাত সাড়ে ১১টায় গান পরিবেশন করবেন কোজআপ ওয়ান সংগীতশিল্পী নোলক। অনুষ্ঠান ও অন্যান্য প্রসঙ্গে কথা হয় তার সঙ্গে। সাক্ষাৎকার নিয়েছেনÑ তারেক আনন্দ

 

"

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
  • নির্বাচিত

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে