উলেন পোশাকের পরিচ্ছন্নতায়

  রওনক বিথী

১৩ ডিসেম্বর ২০১৭, ০২:৫৮ | প্রিন্ট সংস্করণ

প্রকৃতিতে এখন হালকা শীতের আমেজ। আর এই হালকা শীতে উষ্ণতা পেতে উলেন পোশাক গায়ে জড়াতে শুরু করেছেন অনেকেই। এ ধরনের পোশাক পরার পাশাপাশি যতœও নিতে হবে। উলেন পোশাক অন্যান্য পোশাকের মতো ঢালাওভাবে ধোয়া উচিত নয়। এতে উলের পোশাকের উল, সেলাই এমনকি আকৃতিও নষ্ট হয়ে যেতে পারে। তাই উলের পোশাক ধোয়া এবং যতেœর ক্ষেত্রে কিছু নিয়ম মেনে চলুন। চলুন জেনে নেওয়া যাক উলের পোশাক ধোয়ার কায়দা-কানুন। লিখেছেন- রওনক বিথী


ধোয়ার আগে
উলের সোয়েটার, শাল, পঞ্চ, মাফলার ইত্যাদি ধোয়ার আগে কিছুক্ষণ ঠা-া পানিতে ভিজিয়ে রাখুন। তার পর মাইল্ড ডিটারজেন্ট, বেবি শ্যাম্পু বা হ্যান্ডসোপ ঠা-া পানিতে মিশিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এতে ববলিন উঠবে না। সবচেয়ে ভালো হয় যদি উলের পোশাক ধোয়ার পর এক বালতি পানিতে সামান্য গ্লিসারিন বা ল্যাভেন্ডার অয়েল দিয়ে তাতে ডুবিয়ে নেন, এতে পোশাকের নরম ভাব বজায় থাকবে। উল বা পশমি কাপড় এক ঘণ্টার বেশি পানিতে ভিজিয়ে না রাখাই ভালো। হাত ও পা মোজা দীর্ঘক্ষণ ব্যবহারের ফলে এগুলোতে দুর্গন্ধের সৃষ্টি হয়। এ ক্ষেত্রে পানিতে সাদা ভিনেগার মিশিয়ে মিশ্রণটি ফুটিয়ে তাতে মোজা ভিজিয়ে রাখুন। এর পর ডিটারজেন্ট দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। গন্ধ থাকবে না। উলের কাপড় ধোয়ার পর পানি নিংড়ানোর জন্য কখনই মোড়ানো উচিত নয়। ধোয়ার পর বড় তোয়ালের মধ্যে জড়িয়ে দুই হাত দিয়ে চেপে পানি ঝরিয়ে নিন।
সঠিক ব্রাশ ব্যবহার করুন
উলের কাপড় ধোয়ার সময় ব্রাশ দিয়ে বেশি ঘষবেন না। পরিষ্কার করার জন্য সঠিক ব্রাশ ব্যবহার করুন। উলের কাপড়ে সহজেই ধুলাবালি আটকে থাকে। তাই প্রতিদিন সোয়েটারটি খুলে ইলেক্ট্রিক ব্রাশ দিয়ে পরিষ্কার করুন।  
রোদে শুকাতে
উল বা পশমি কাপড় কখনই কড়া রোদে শুকাতে দেওয়া উচিত নয়। ফ্যানের বাতাসে কিংবা ছায়ায় শুকানোর চেষ্টা করুন। শুকানোর জন্য এসব পোশাক ঝুলিয়ে রাখবেন না। কারণ এ ধরনের পোশাক এতই নরম যে ঝুলিয়ে রাখার ফলে এর আকার নষ্ট হয়ে যায়। উলের সোয়েটার শুকানোর জন্য কোনো সমতল জায়গা ব্যবহার করুন। শুকানোর পর এসব কাপড় ভাঁজ না করে হ্যাঙ্গারে ঝুলিয়ে রাখুন।
ইস্ত্রি করতে
পশমি ও উলের কাগড় ইস্ত্রি করার সময় উল্টে নিন এবং এর ওপর সুতি পাতলা কাপড় বিছিয়ে নিন। গরম ইস্ত্রি সরাসরি যেন উল স্পর্শ না করে সেদিকে লক্ষ্য রাখুন।
ব্যবহারের পর
সোয়েটার বা শাল ব্যবহার করার পর অন্তত ১২ ঘণ্টা হ্যাঙ্গারে ঝুলিয়ে রাখুন। কুঁচকে যাওয়া জায়গাগুলো ঠিক হয়ে যাবে। ব্যবহারের পর সোয়েটার ফোল্ড করে রাখুন। উলের জামাকাপড় বেশি ড্রাই ক্লিনিং না করাই ভালো।
দাগ লাগলে
উলের কাপড়ে যে কোনো ধরনের দাগ লাগলে সঙ্গে সঙ্গে পানিতে ধুয়ে নিন। তার পর ওই দাগের ওপর স্পঞ্জ করে ভিনেগার নিয়ে বৃত্তাকারভাবে ঘষুন। দাগ চলে যাবে। আর যদি দাগ না যায় তবে ড্রাই ক্লিনারে দিতে পারেন।

 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
  • নির্বাচিত

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে